আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৩০-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

জাতীয় ক্রিকেট লিগ কাল শুরু

স্পোর্টস রিপোর্টার
| খেলা

জাতীয় ক্রিকেট লিগপূর্ব গণমাধ্যম পর্বে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিচ্ছেন বাঁ থেকে বিসিবি টুর্নামেন্ট বিভাগের ইনচার্জ আরিফুল ইসলাম, ওয়ালটন গ্রুপের ডেপুটি নির্বাহী পরিচালক উদয় হাকিম, বিসিবির সদস্য সচিব রাকিব হায়দার ও ওয়ালটন গ্রুপের অপারেটিভ ডিরেক্টর শাহজাদা সেলি

ঘরোয়া ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসর জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল); অষ্টম আসর শুরু হচ্ছে আগামীকাল। প্রথম রাউন্ডে টায়ার ওয়ানে শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন খুলনা বিভাগ মুখোমুখি হবে রাজশাহী বিভাগের। রংপুর ও বরিশাল বিভাগ মুখোমুখি হবে শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামে। দ্বিতীয় স্তরে খান সাহেব ওসমান আলী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ঢাকা বিভাগ মুখোমুখি হবে চট্টগ্রাম বিভাগের। এ স্তরের অপর দুই দল সিলেট বিভাগ ও ঢাকা মেট্রো লড়বে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।
টানা আট বছর ধরে এ লিগের স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপ। শনিবার মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সভাকক্ষে ওয়ালটন গ্রুপকে জাতীয় ক্রিকেট লিগের ২০তম আসরের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে ঘোষণা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের ডেপুটি নির্বাহী পরিচালক (ক্রিয়েটিভ অ্যান্ড পাবলিকেশন) উদয় হাকিম, অপারেটিভ ডিরেক্টর শাহজাদা সেলিম, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সদস্য সচিব গাজী রাকিব হায়দার পাভেল ও টুর্নামেন্ট বিভাগের ইনচার্জ আরিফুল ইসলামসহ অন্যান্যরা।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ১ অক্টোবর থেকে শুরু হবে ঘরোয়া ক্রিকেটের সর্বোচ্চ এ আসর। এবারই প্রথম হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে মোট আটটি ভেন্যুতে জাতীয় ক্রিকেট লিগের খেলাগুলো হবে।
প্রথম দিকে রংপুর তাদের হোম ভেন্যু হিসেবে খুলনা স্টেডিয়ামকে ব্যবহার করবে। পরবর্তীতে তারা তাদের হোম ভেন্যু রংপুর ক্রিকেট গার্ডেনেই খেলবে। বাকিরা তাদের নিজ নিজ হোম ভেন্যুতেই হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে খেলবে। গতবারের মতো এবারও দুই স্তরে (টায়ার ওয়ান ও টায়ার টু) জাতীয় ক্রিকেট লিগ হবে। প্রথম স্তরে খেলবে গতবারের চ্যাম্পিয়ন খুলনা বিভাগ, রংপুর বিভাগ, বরিশাল বিভাগ ও রাজশাহী বিভাগ (গেল আসরে দ্বিতীয় স্তর থেকে প্রথম স্তরে উন্নীত)। দ্বিতীয় স্তরে লড়বে ঢাকা মেট্রো, চট্টগ্রাম বিভাগ, সিলেট বিভাগ ও ঢাকা বিভাগ (গেল আসরে প্রথম স্তর থেকে অবনমিত)।
সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সদস্য সচিব গাজী রাকিব হায়দার পাভেল বলেন, ‘প্রথম দুই রাউন্ডে জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড়রা খেলবেন। সবকটি দল জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের অন্তর্ভুক্ত করেই দল ঘোষণা করেছে। অবশ্য জাতীয় দলের এক-দুইজন খেলোয়াড় নাও খেলতে পারেন অতিরিক্ত ম্যাচ খেলায় ক্লান্ত থাকার কারণে। তবে প্রথম দুই রাউন্ডের ম্যাচে নিশ্চিতভাবেই জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা খেলছেন।’
এ বিষয়ে ওয়ালটন গ্রুপের ডেপুটি নির্বাহী পরিচালক (ক্রিয়েটিভ অ্যান্ড পাবলিকেশন) উদয় হাকিম বলেন, ‘আসলে জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা যখন খেলেন, তখন কিন্তু ওই টুর্নামেন্টের মহত্ব বাড়ে, সৌন্দর্য বাড়ে। স্পন্সর প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমরা বেশি মাইলেজ পাই। তারপরও আমাদের একটু দেশের কথাটা আগে ভাবতে হবে। তারা যে জাতীয় দলকে সার্ভিস দিচ্ছে, সেখানে যে অবদান রাখছে সেটাকে আমাদের আগে মাথায় রাখতে হবে। আমরা কিন্তু ধরেই নিই যে জাতীয় দলের খেলোয়াড়দের পাব না। তারপরও আমরা তাদের এক রাউন্ড, দুই রাউন্ড করে পাই। তাতেই আমরা খুশি।’