আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৩০-০৯-২০১৮ তারিখে পত্রিকা

ফতুল্লায় ‘ভুল চিকিৎসায়’ প্রসূতি মৃত্যুর অভিযোগে আটক ৬

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি
| দেশ

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পাগলাবাজার এলাকায় নিউ পপুলার নামের একটি বেসরকারি জেনারেল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় গর্ভের সন্তানসহ প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শনিবার সকালে বিক্ষুব্ধ জনতা হাসপাতালে ভাঙচুর চালান। এ সময় পুলিশ হাসপাতালের মালিকসহ ছয়জনকে আটক করেছে। নিহত শিল্পী বেগম ফতুল্লার পূর্ব দেলপাড়া এলাকার রংমিস্ত্রি আলমগীর হোসেনের স্ত্রী। আটকরা হলেন হাসপাতালের মালিক ডা. মজিবুর রহমান, মাসুম আহমেদ, আহম্মদ আলী খান, কামরুন্নাহার, মেডিকেল অফিসার ডা. জামিল আহমেদ ও নার্স সুরমা বেগম। আলমগীর হোসেন জানান, তার স্ত্রী শিল্পী বেগম পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। হঠাৎ অসুস্থবোধ করলে তাকে বৃহস্পতিবার বিকালে পাগলাবাজার এলাকায় অবস্থিত নিউ পপুলার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে ডা. জেসিকা রিজভী তামান্না পরীক্ষা করে তাকে ভর্তি করেন। শুক্রবার দুপুরে হাসপাতালের লোকজন অপারেশনের কথা বলে রক্তের ব্যবস্থা করতে বলেন। কথামতো আমি রক্ত আনতে যাই। এর মধ্যে আমার স্ত্রীকে কোনো অনুমতি ছাড়াই তারা অপারেশন করেন। এ সময় সন্তানসহ আমার স্ত্রী মারা যান। রক্ত নিয়ে ফিরলে তারা দ্রুত আমার স্ত্রীকে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়ার কথা বলে টালবাহানা করেন। হাসপাতাল মালিক কামরুন্নাহার জানান, রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে অপারেশন করা হয়। অপারেশনের সময় রোগী হার্ড স্ট্রোক করেন। এর মধ্যেই পাঁচ মাসের শিশুটি মৃত অবস্থায় বের করা হয়। আমাদের চিকিৎসায় কোনো ভুল ছিল না। ফতুল্লা মডেল থানার এসআই দিদারুল আলম জানান, ঘটনাটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ছয়জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। হাসপাতাল কিছুটা ভাঙচুর করেছেন বিক্ষুব্ধ জনতা। পরিস্থিতি এখন শান্ত রয়েছে।