আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ২২-০২-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

তালিকাভুক্ত হচ্ছে জীবিত তিন ভাষাসৈনিকের নাম

মেহেরপুর প্রতিনিধি
| শেষ পাতা

১৯৫২ সালে মহান ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী জীবিত তিন ভাষাসৈনিকের নামের তালিকা মেহেরপুর জেলা প্রশাসনের কাছে জমা দিয়েছেন ভাষা সৈনিকদের তত্ত্ব ও তথ্য সংগ্রহকারী উপকমিটি। ৬ ফেব্রুয়ারি মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসক আতাউল গনির সভাপতিত্বে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ১৯৫২ সালে মেহেরপুরের ভাষাসৈনিক ও ১৯৫৬ সালের ভাষা সংগ্রামীদের নিয়ে আলোচনা হলে জেলা প্রশাসক জীবিত ভাষাসৈনিকদের তত্ত্ব ও তথ্য সংগ্রহ করার জন্য মেহেরপুর সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ড. গাজী রহমানকে আহ্বায়ক করে ৪ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি করে দেন। কমিটির অন্যরা হলেন মুজিবনগর সরকারি ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক মোরাদ আলী, সাংবাদিক তোজাম্মেল আযম ও জিএফ মামুন লাকি। কমিটিকে ১০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন পেশ করার নির্দেশ দেওয়া হয়। কমিটির দেওয়া  তত্ত্বমতে, ১৯৫২ সালে মেহেরপুরের ভাষা আন্দোলনে সক্রিয় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে জীবিত আছেন পৌরসভার কালাচাঁদপুরের সুলতান শেখ, পুরাতন পোস্ট অফিসপাড়ার গোলাম কাউসার চানা ও গাংনী উপজেলার বাউট গ্রামের সিরাজুল ইসলাম এবং ১৯৫৬ সালের ভাষা দিবস পালনে যারা কারাবরণ ও রাজটিকিট পান তাদের মধ্যে শহরের টিঅ্যান্ডটিপাড়ার ইসমাইল হোসেন ও সদর উপজেলার পিরোজপুর গ্রামের নজির হোসেন বিশ্বাস জীবিত আছেন। উপরোক্ত নাম ও তথ্য সংগ্রহ করে উপকমিটির আহ্বায়ক স্বাক্ষরিত প্রতিবেদন জেলা প্রশাসনে জমা দেওয়া হয়েছে।