আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৬-০৫-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

দল থেকে বাদ পড়া উপভোগ করেন ইমরুল

স্পোর্টস রিপোর্টার
| খেলা

জাতীয় দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটারদের মানসিকভাকে প্রস্তুত রাখার জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ৩০ সদস্যের এলিট প্লেয়ার্স নামে দল ঘোষণা করেছে। ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে ভালো করা ক্রিকেটারদের নিয়ে এ দল ঘোষণা করা হয়।

নিয়মিত মিরপুরে অনুশীলন করছে ৩০ সদস্যের এ দল। লক্ষ্য বিশ্বকাপে কোনো ক্রিকেটারের ইনজুরি হলে যে কোনো সময়ে দলের সঙ্গে গিয়ে মানিয়ে নেওয়া যায় এবং মানসিকভাবে প্রস্তুতি থাকা।
এ ৩০ জনের দলে রয়েছেন অভিজ্ঞ ইমরুল কায়েস। গত বিশ্বকাপে হুট করেই বিশ্বকাপ দলে ডাক পেয়েছিলেন। শুধু বিশ্বকাপেই নয়, এ রকম অভিজ্ঞতায় প্রায়ই পড়তে হয় তাকে। এশিয়া কাপে দলে না থাকলেও টুর্নামেন্টের মাঝ পথে বিসিবি সভাপতির পছন্দে দুবাইয়ের বিমান ধরে ছিলেন ওপেনার ইমরুল কায়েস। সাতে নেমে আফগানিস্তানের বিপক্ষে খেলেছিলেন ৭২ রানের ম্যাচ উইনিং নক। এরপর ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে দুই সেঞ্চুরি আর এক হাফ সেঞ্চুরি ক্রিকেট ক্যারিয়ারের সেরা ফর্মে ইমরুল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ইনফর্ম ইমরুল ব্যাটে রান খরায় বাদ পড়লেন নিউজিল্যান্ড সফরে। নাম উঠেনি বিশ্বকাপ দলেও। জাতীয় দলে আসা-যাওয়াটাই যেন এখন ইমরুলের নিয়তি। বিষয়টি মেনে নিলেও দলের প্রয়োজনে যে কোনো সময় খেলতে নিজেকে প্রস্তুত রাখেন তিনি। তাই বিশ্বকাপে সুযোগ না পেলেও হতাশ নন ইমরুল। বরং এ বিষয়টাকে এখন উপভোগ করেন। সংবাদমাধ্যমকে ৩২ বয়সি এ ব্যাটসম্যান বলেন, ‘যখন দলের মধ্যে আসা-যাওয়ার মধ্যে থাকি তখন অনেক কিছুই শিখি। নিজেকে উপলব্ধি করতে শিখি। এটা আমার জন্য ভালো, আমি এতে কখনও অনুৎসাহিত হই না।’
তবে ইমরুল মনে করেন, এ ধরনের ক্যাম্পের আয়োজন করা ইতিবাচক। ক্রিকেটারদের জন্য ভালো উদ্যোগ। বাঁ হাতি এ ওপেনার বলেন, ‘এটা খুবই ভালো দিক যে, এখানে অনুশীলনের মধ্যে আছি। যদি সুযোগ আসে সেখানে গিয়ে যে কোনো পরিস্থিতিতে খেলতে আমি প্রস্তুত। হঠাৎ করে দলে ডাক পেয়ে খেলার চাপটা কিন্তু সহজ নয়।’