আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৬-০৫-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

বিএসটিআইয়ের মামলা ১১ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে

| অর্থ-বাণিজ্য

বুধবার রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে মানহীন পণ্য বিক্রি ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি এবং ওজন যন্ত্রের ভেরিফিকেশন সনদ গ্রহণ না করার অপরাধে ১১টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করেছে জাতীয় মান নিয়ন্ত্রণকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। 

বিএসটিআইয়ের লাইসেন্স গ্রহণ না করে পণ্য বিক্রি ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে পাউরুটি-বিস্কুট উৎপাদন করার অপরাধে রাজধানীর গেন্ডারিয়ায় তুর্য ব্রেড অ্যান্ড বিস্কুট ফ্যাক্টরি ও লাইসেন্স না থাকায় যাত্রাবাড়ীর বিক্রমপুর ভাগ্যকুল মিষ্টান্ন ভা-ার, ধামরাইয়ের বেইজ পেপারস লিমিটেড, উত্তরার লা বামবা লিমিটেডের বিরুদ্ধে মামলা এবং অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে খাদ্য উৎপাদন ও সংরক্ষণ করার অপরাধে ফকিরাপুল এলাকার আল ইমাম রেস্টুরেন্টকে ৩০ হাজার, এশিয়া গার্ডেন রেস্টুরেন্টকে ৫০ হাজার, গাউসিয়া হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টকে ৩০ হাজার, আবদুল কুদ্দুস ভূঁইয়া স্টোরকে ২০ হাজার এবং আরামবাগের ঘরোয়া রেস্টুরেন্টকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া ভেরিফিকেশন সনদবিহীন ডিজিটাল স্কেলের ব্যবহার ও পণ্যের মোড়কে ওজন, মূল্য, উৎপাদন ও মেয়াদোত্তীর্ণেও তারিখ এবং পণ্যেও পরিচিতি উল্লেখ না করায় মিরপুরের মেসার্স রওজাত জেনারেল স্টোর এবং মেসার্স মুসলীম সুইটস অ্যান্ড বেকারির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।
ওজন যন্ত্রে ভেরিফিকেশন সনদ না থাকায় সিলেটের আঁখি স্টোর ও আলী স্টোরের বিরুদ্ধে মামলা এবং মানহীন পণ্য বিক্রি ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরির অপরাধে সুবিদ বাজার এলাকার মিতালী রেস্তোরাঁকে ১০ হাজার, মধুফুলকে ২ হাজার, মোহনা সুপার স্টোরকে ২ হাজার ও ডেইলি সপকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পচা খেজুর বিক্রির অপরাধে রাজশাহীর রিপনের খেজুরের দোকানকে ১ হাজার ৫০০ টাকা ও নোংরা পরিবেশে খাদ্য সংরক্ষণের অপরাধে মেসার্স সেলিম হোটেল অ্যান্ড রেস্টরেন্টকে ৩ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  সংবাদ বিজ্ঞপ্তি