আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৬-০৫-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

গাড়িতে করে দৈনিক ১৫ হাজার লিটার বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ

বরিশালে ভয়াবহ পানি সংকট

বরিশাল ব্যুরো
| শেষ পাতা

বরিশাল নগরীতে তীব্র পানি সংকট দেখা দিয়েছে। স্তর নেমে যাওয়ায় মধ্য নগরে টিউবওয়েলে পানি উঠছে না। বর্ধিত ও বস্তি এলাকায় এ অবস্থা আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। 

বরিশাল সিটি করপোরেশনের (বিসিসি) তথ্যমতে, নগরীতে চাহিদার বিপরীতে প্রতিদিন পানির ঘাটতি আড়াই কোটি লিটার। রমজানে পানির এ সংকটের কথা স্বীকার করে এরই মধ্যে দুঃখ প্রকাশ করেছে বিসিসি। পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে দৈনিক ১৫ হাজার লিটার বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিসিসির পানি শাখার নির্বাহী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির।
বিসিসি সূত্রে জানা গেছে, নগরীতে সিটি করপোরেশনের পানির গ্রাহক আছেন ২২ হাজার। নগরবাসীর পানির চাহিদা মেটাতে ৩৬ পাম্প হাউস রয়েছে তাদের। এর মধ্যে চারটি পাম্প অচল। বাকি ৩২ পাম্প এবং বিসিসির স্থাপন করা প্রায় ১ হাজার ৩০০ টিউবওয়েল দিয়ে দৈনিক ২ কোটি ৯০ লাখ লিটার বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করা হয়। কিন্তু নগরবাসীর দৈনন্দিন পানির চাহিদা ৫ কোটি ৫০ লাখ লিটার। সে হিসাবে প্রতিদিন পানির ঘাটতি রয়েছে ২ কোটি ৬০ লাখ লিটার। 
নগরীর ১৫নং ওয়ার্ডের নিউ সার্কুলার রোডের বাসিন্দা মাসুদ আহমেদ জানান, তার বাসায় অনেক আগে স্থাপন করা টিউবওয়েল থেকে কয়েক মাস আগে গভীর রাতে পানি তুলতে হতো। এখন আর তাও উঠছে না। সাপ্লাই পানির গতিও কম। অথচ মাস শেষে পানির বিল পরিশোধ করতে হচ্ছে। নগরীর ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা কাজী এনায়েত হোসেন শিবলু বলেন, তার এলাকায় টিউবওয়েলে পানি ওঠে না। গভীর রাতে যেটুকু ওঠে তা দিয়ে চাহিদা পূরণ হয় না। তিনি বলেন, বিসিসি যে সাপ্লাই পানি সরবরাহ করছে তাও অপ্রতুল। এ অবস্থায় টিউবওয়েল স্থাপনের ক্ষেত্রে বিসিসিকে নামমাত্র ফি ও সহজ শর্ত দেওয়া উচিত। 
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, নগরীর বিভিন্ন বস্তি এবং বর্ধিত এলাকায় সুপেয় পানির সংকট সবচেয়ে বেশি। পানি সরবরাহের ব্যবস্থা না থাকায় টিউবওয়েল স্থাপনের অসংখ্য আবেদন পড়েছে নগর ভবনে। তবে টিউবওয়েল স্থাপনে সিটি করপোরেশনের রাজস্ব ফি বেশি থাকায় বিপাকে পড়েছেন এমনটাই দাবি নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ডের সাধারণ মানুষের।
এদিকে ১২ মে বিসিসি এক খবর বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, নগরীতে ভূগর্ভস্থ পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ায় বিভিন্ন এলাকায় পানি সংকট দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে কলোনিগুলোতে বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট বেশি রয়েছে। সাময়িক এ সংকটের জন্য নগরবাসীর প্রতি দুঃখ প্রকাশ করেছে বিসিসি কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকেই রমজান মাসে ভ্রাম্যমাণ গাড়ির মাধ্যমে নগরের বিভিন্ন এলাকায় ১৫ হাজার লিটারের ওপরে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ করছে বরিশাল সিটি করপোরেশন (বিসিসি)।
সিটি করপোরেশনের পানি শাখার নির্বাহী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবির জানান, বিকল পাম্পগুলো সচল করে পানি উৎপাদন বাড়ানোর চেষ্টা চলছে। এছাড়া সংকটময় এলাকা নির্ধারণ করে প্রতিদিন ১৫ হাজার লিটারের মতো পানি সরবরাহ করা হচ্ছে। মেয়র নিজেও এ কাজ প্রতিনিয়ত দেখভাল করে থাকেন। এরই মধ্যে তারা রসুলপুর, কলাপট্টি, পলাশপুর, হাসপাতাল রোডসহ বিভিন্ন এলাকায় পানি সরবরাহ শুরু করেছেন।