আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৩-০৬-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

আরও চার জেলায় পাঁচজনের প্রাণহানি

ঢাকায় দুই বাসের প্রতিযোগিতায় নিহত ১

নিজস্ব প্রতিবেদক
| শেষ পাতা

কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী মহাসড়কে কুষ্টিয়ার খোকসা উপজেলার শিমুলিয়া এলাকায় বুধবার একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়লে মোকাদ্দেস হোসেন নামে এক বাসযাত্রী নিহত হন ষ আলোকিত বাংলাদেশ

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বেড়িবাঁধ এলাকায় বেপরোয়া গতির দুটি বাসের মাঝখানে চাপা পড়ে এক সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক নিহত হয়েছেন। নিহতের নাম তোফাজ্জল হোসেন মীর (৫৫)। এ ঘটনায় চার যাত্রী আহত হয়েছেন। তাদের ধানমন্ডির বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার ভোর ৫টার দিকে বেড়িবাঁধের তিনরাস্তা মোড়ে ব্রাদার্স পরিবহন ও প্রত্যয় পরিবহনের দুটি বাসের চাপায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত তোফাজ্জলের গ্রামের বাড়ি ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার সাচড়া ইউনিয়নে।
নিহত তোফাজ্জলের স্বজন কামাল মীর বলেন, সিএনজি অটোরিকশায় করে যাত্রী নিয়ে যাচ্ছিলেন তোফাজ্জল। এ সময় বেড়িবাঁধের তিনরাস্তা মোড়ে পৌঁছলে আগে যাওয়ার জন্য প্রতিযোগিতায় লিপ্ত ব্রাদার্স পরিবহন ও প্রত্যয় পরিবহনের দুটি বাসের মাঝখানে পড়ে যায় তার সিএনজি অটোরিকশা। এক পর্যায়ে একটি বাস অপরটিকে ওভারটেকিং করতে গেলে দুটি বাসের মাঝখানে সিএনজি অটোরিকশাটি চাপা পড়ে। এতে চালক তোফাজ্জল ছাড়াও আরও চার যাত্রী আহত হয়। পরে প্রত্যক্ষদর্শীরা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তোফাজ্জলকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত চারজন বর্তমানে ধানমন্ডির বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।
চার জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় আরও পাঁচজন নিহত হয়েছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ
পাবনা : পাবনায় মোটরসাইকেল ও অটোবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চাচা-ভাতিজা নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন সদর থানার বলরামপুর গ্রামের আমিন উদ্দিন প্রামানিকের ছেলে হাফেজ ওয়ালিদ প্রামানিক ও শফিক প্রামানিকের ছেলে প্রান্ত প্রামানিক। বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের চাঁদমারী মোড়ে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।
পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুল হক জানান, সকালে এক আত্মীয়ের জানাজা শেষে দোকানের ভুসি মাল আনার জন্য ওয়ালিদ ও তার ভাতিজা প্রান্ত মোটরসাইকেলযোগে পাবনার শিল্প নগরী এলাকায় (বিসিক) এ যাচ্ছিল। পথিমধ্যে শহরের চাঁদমারি মোড়ে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ব্যাটারিচালিত অটোবাইকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় মোটরসাইকেল আরোহী চাচা হাফেজ ওয়ালিদ প্রামানিক ও ভাতিজা প্রান্ত প্রামানিক দ্রুতগামী অটোবাইকের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।
পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।
তারাগঞ্জ (রংপুর) : রংপুরের তারাগঞ্জ উপজেলার বেলতলী নামক স্থানে বাদশা আদেল (৫৫) নামে একজন পথচারী নিহত হয়েছে। নিহত ব্যক্তি উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের ঘনিরামপুর জোতপাড়া গ্রামের মৃত খয়ের উল্লাহর ছেলে বলে জানা গেছে। 
তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকাল পৌনে ৮টার দিকে বেলতলী মেডিকেল মোড়ে রাস্তা পারাপারের সময় হানিফ এন্টারপ্রাইজের ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একটি নৈশ কোচ বাদশা আদেলকে ধাক্কা দিয়ে বাসটি পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় এলাকাবাসী ক্ষুদ্ধ হয়ে প্রায় ২ ঘণ্টা রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। খবর পেয়ে তারাগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান লিটন, তারাগঞ্জ থানার ওসি জিন্নাত আলী, তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি আবদুল্লাহেল বাকী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে জনগণকে শান্ত করে অবরোধ তুলে দেয়। 
মেহেরপুর : মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কে মেহেরপুর গাংনী উপজেলার বাঁশবাড়িয়া ফিলিং স্টেশনের সামনে গাছের সঙ্গে ঢাকাগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কায় শাহিন (৩৫) নামের এক হেলপার নিহত হয়েছে। তার বাড়ি মুজিবনগর উপজেলার পুরন্দরপুর গ্রামে। সে ওই গ্রামের গোপিনাথপুর পাড়ার সোনা মিয়ার ছেলে। একই ঘটনায় আহত হয়েছেন গাড়ির চালক। মঙ্গলবার বিকালে এ ঘটনা ঘটে।
গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হরেন্দ্র নাথ সরকার জানান, বিকালে তেল পাম্প থেকে এক মোটরসাইকেল চালক তেল নিয়ে মূল সড়কে উঠতে যায়। এ সময় মেহেরপুর থেকে ছেড়ে আসা শ্যামলী পরিবহনের বাসটি মোটর সাইকেল চালককে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশের একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে গাড়ির সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে যায়। গুরুতর আহত হয় বাসের হেলপার শাহিন। গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে সন্ধ্যায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় চালক জিল্লুর রহমান (৪৮) আহত হয়েছে। তবে গাড়ির যাত্রীরা কেউ হতাহত হয়নি।
দিনাজপুর : দিনাজপুরের বিরলে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে আনোয়ার হোসেন (৫০) নামে ১ মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টায় দিনাজপুর-বোচাগঞ্জ সড়কের বিরল উপজেলার ধামইর ইউপির নিজামপুর (তেঁতুলতলা) নামকস্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আনোয়ার হোসেন বিরল উপজেলার শহরগ্রাম ইউপির মুটুকপুর গ্রামের মৃত তমিজ উদ্দীনের ছেলে। 
বিরল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এটিএম গোলাম রসুল জানান, বিরল উপজেলা থেকে মোটরসাইকেল নিয়ে আনোয়ার হোসেন বোচাগঞ্জ উপজেলায় যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে নিজামপুরে সেতাবগঞ্জমুখী ট্রাক মোটরসাইকেলকে ওভারটেক করতে গিয়ে আনোয়ার হোসেনকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে সে মারা যায়। 
ঘাতক ট্রাকটি পালিয়ে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ব্যাপারে বিরল থানায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।