আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৩-০৬-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

কিশোরী, স্কুলছাত্রী ও শিশুসহ পাঁচ জেলায় সাতজন ধর্ষিত

আলোকিত ডেস্ক
| খবর

পাঁচ জেলায় কিশোরী, স্কুলছাত্রী ও শিশুসহ সাতজন ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় দুই কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার উজিরপুর থানায় পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। আর প্রাইভেট শেষে বাড়ি ফেরার পথে পাবনায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। গেল সোমবার এই ঘটনাটি ঘটেছে। তাছাড়া নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় সৎ ভাই কর্তৃক ধর্ষণের শিকার হয়েছে এক কিশোরী। মঙ্গলবার রাতে বন্দর থানার বঙ্গশাসনস্থ পারটেক্স ক্যাবলের রাস্তার পাশে কবরস্থানের কাছে একটি ঝোপে এ ঘটনাটি ঘটে। আর সিদ্ধিরগঞ্জে সুমিলপাড়া এলাকার ১৩ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে বুধবার সুমিলপাড়া মুনলাইট সিনেমা হলের পূর্ব পাশে আবদুল বারেক মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া ও সলেমুদ্দি শিকদারের ছেলে আবু কালাম শিকদারকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এছাড়া কালকিনি উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের দাতপুর এলাকায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে রাজিব খানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এদিকে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার পল্লিতে ৫ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ
পাবনা : বুধবার দুপুরে পাবনা প্রেসক্লাবে এসে ধর্ষিত ছাত্রীর বাবা ও চাচা সাংবাদিকদের জানান, সোমবার বিকালে শিশুটি একদন্ত হাইস্কুলের পাশে একটি কোচিং সেন্টারে প্রাইভেট পড়তে যায়। প্রাইভেট শেষে বাড়ি ফেরার পথে হাইস্কুলের সামনের কসমেটিক্সের দোকানদার ও একদন্ত ইউনিয়নের নরজান গ্রামের আব্দুল্লাহর ছেলে লম্পট আকাশ ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক একটি পাটক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় ওই ছাত্রী চিৎকার দিয়ে জ্ঞানশূন্য হয়ে পড়ে। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে গেলে লম্পট আকাশ পালিয়ে যায়। অসুস্থ অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। একদন্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসেন এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আকাশ নামের লম্পট ছেলেটির বিরুদ্ধে এর আগেও একই ধরনের কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। তার দৃষ্টান্তমূলক বিচার হওয়া দরকার। 
বরিশাল : জানা গেছে, জল্লা ইউনিয়নের কারফা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়েছে তার প্রেমিক বিনোদ শীলের বিরুদ্ধে। ছাত্রীটির মা শিখা রানী জানান, পার্শ্ববর্তী মাদ্রা গ্রামের বখাটে বিনোদ শীল ৯ মে সহযোগী আশীক শীল ও তপন শীলের সহায়তায় ছাত্রীকে বিয়ের প্রভোবন দেখিয়ে ধর্ষণ করেছে। শিখা রানী বুধবার দুপুরে উজিরপুর থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ ছাত্রীকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করেছে।
অপরদিকে গুঠিয়া ইউনিয়নের বান্না গ্রামে এক কিশোরীকে (১৪) তার চাচাত ভাই রাজীব গাজী (১৯) ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। কিশোরীর মা জানান, তিনি গেল মঙ্গলবার দুপুরে মেয়েকে ঘরে রেখে কিস্তি দিতে পার্শ্ববর্তী এনজিও অফিসে যান। 
এ সুযোগে রাজীব তার মেয়েকে নিজের ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেছে। এতে মেয়েটির রক্তক্ষরণ হলে রাজীব সটকে পড়ে এবং তার মা এসে শিশুটির জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করেন। এ সময় মেয়েকে খুঁজতে রাজীবদের ঘরে যান তিনি। সেখানে গিয়ে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পেয়ে মেয়েকে উদ্ধার করে প্রথমে বানারীপাড়া হাসপাতালে ও পরে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে আসেন। কিশোরীর পিতা আফসার আলী বাদী হয়ে বুধবার  রাজীব ও তার মাকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন।
দিনাজপুর : ধর্ষণের শিকার শিশুটির মা বলেন, মঙ্গলবার বিকালে আমার মেয়ে ছোট ছেলেসহ বাড়ির কিছুটা দূরে মোখলেছুর রহমানের দোকানের পাশে খেলছিল। এমন সময় পাশের গ্রামের মোস্তাকিম নামে এক লোক এসে আমার মেয়েকে খুচরা পয়সা হাতে দিয়ে লোভ দেখিয়ে সেকেন্দার আলীর পাটক্ষেতে নিয়ে যায়। পরে ধর্ষণ করার চেষ্টা করলে সে চিৎকার করে। 
আমি মেয়ের চিৎকার শুনে দৌড়ে গেলে মোস্তাকিম পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় আমার মেয়ে মোস্তাকিমকে দেখিয়ে দিলে এলাকাবাসী তাকে আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে শিশুটিকে উদ্ধার করে চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান শিশুটির মা। 
নারায়ণগঞ্জ : সিদ্ধিরগঞ্জের সুমিলপাড়া এলাকার ১৩ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার সুমিলপাড়া মুনলাইট সিনেমা হলের পূর্ব পাশে আবদুল বারেক মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া ও সলেমুদ্দি শিকদারের ছেলে আবু কালাম শিকদারকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর আগে সকালে ধর্ষিতার চাচা বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অভিযুক্তকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। 
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) হাফিজুর রহমান জানান, ধর্ষিতার পিতা অসুস্থ থাকায় তাকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে এর আগেও একাধিকবার ধর্ষণ করেছে অভিযুক্ত আবু কালাম। মঙ্গলবার বাসায় একা পেয়ে এবারও কিশোরীকে ডেকে ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে বলে মেয়ের চাচা জানায়। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মীর শাহীনশাহ্ পারভেজ জানান, কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত আবু কালামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা নেওয়া হয়েছে। এদিকে সৎ বোনকে ধর্ষণের ঘটনায় বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার হৃদয় ধর্ষিতার সৎ মায়ের আগের সংসারের সন্তান। ধর্ষিতার মা ১০ বছর আগে মৃত্যুবরণ করার কারণে তার পিতা ধর্ষকের মাকে বিয়ে করে। মঙ্গলবার রাত ৮টায় কিশোরী তাদের পুরোনো বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে আসার পথে লম্পট হৃদয় তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে কবরস্থানের কাছে একটি ঝোপে ধর্ষণ করে। পুলিশ ধর্ষিতাকে ডাক্তারি পরিক্ষার জন্য ১০০ শয্যাবিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে এবং ধর্ষককে বুধবার সকালে আদালতে প্রেরণ করেছে। 
কালকিনি : থানা ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের দাতপুর গ্রামের ওয়ারেস খানের ছেলে রাজিব খানের সঙ্গে প্রায় একবছর আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে লক্ষ্মীপুর ইউনিয়নের দাতপুর এলাকায় ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থীর। রোববার রাত সাড়ে ১২টার দিকে মোবাইল ফোনে তাকে ডেকে নেয় রাজিব। পরে আমজাদ সরদারের পাটক্ষেতে নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই শিক্ষার্থীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে রাজিব। এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, লক্ষ্মীপুর এলাকার ধর্ষণের ঘটনায় ভিকটিমের অভিযোগে একটি মামলা হয়েছে এবং ধর্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
চাঁদপুর : জানা গেছে, রূপসা দক্ষিণ ইউনিয়নের সাহেবগঞ্জ গ্রামের পার্শ্ববর্তী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রকে (৮) ৪ মে আম খাওয়ানোর কথা বলে ডেকে নিয়ে প্রতিবেশি জাফর বেপারী জোরপূর্বক বলাৎকার করে। পরে শিশুটি তার পরিবারকে ঘটনা জানালে শিশুটির পিতা স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করে। কিন্তু দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরও কোনো সুরাহা না পাওয়ায় সোমবার রাতে শিশুটির পিতা বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ পরবর্তীকালে ঘটনা অনুসন্ধান করে বুধবার অভিযুক্ত জাফর বেপারীকে আটক করে।