আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৬-০৬-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

গ্রেপ্তার এড়াতে দুই গ্রাম পুরুষশূন্য

কোটালীপাড়া ও কালকিনিতে মামলা

আলোকিত ডেস্ক
| দেশ

মামলা হওয়ায় গ্রেপ্তার এড়াতে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার লোহারংক ও মাদারীপুরের কালকিনির পূর্বচর আলিমাবাদ গ্রাম পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর
গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার লোহারংক গ্রামে লুডু খেলা নিয়ে সংঘর্ষে থানায় পৃথক দুটি মামলা হওয়ায় গ্রেপ্তার এড়াতে গা-ঢাকা দেওয়ায় অর্ধশত পরিবার পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে উভয় পক্ষের আসামিরা জামিনে এসে ফের সংঘর্ষে লিপ্ত হতে পারে বলে ভয়ে রয়েছেন এলাকাবাসী। শনিবার সরেজমিন এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করতে দেখা গেছে। জানা গেছে, ৮ জুন সন্ধ্যায় লোহারংক গ্রামের আলামিন শেখের ছেলে মোরছালিন শেখ ও জালাল মোল্লার ছেলে ইমন মোল্লা টাকা দিয়ে বাজি ধরে মোবাইল ফোনে লুডু খেলছিলেন। এ সময় এলাকার মহিলা মেম্বার রাশিদা বেগমের ছেলে সজিব শেখ টাকা দিয়ে বাজি ধরে লুডু খেলতে নিষেধ করেন। এতে মোরছালিন ও ইমন মিলে সজিবকে মারধর করেন। পরে এ নিয়ে উভয় পক্ষে সংঘর্ষ হলে মহিলাসহ ২০ জন আহত হন। এ ঘটনায় রাতে উভয় পক্ষ থানায় আলাদা আলাদা মামলা করে। কোটালীপাড়া থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত জাকারিয়া বলেন, দুটি মামলার উভয় পক্ষের চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে। 
কালকিনি : মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলরার পূর্বচর আলিমাবাদ গ্রাম্য দলাদলির জেরে ছয় দিন ধরে পুরুষশূন্য হয়ে রয়েছে। ঘটনার সুষ্ঠু বিচার ও শ্লীলতাহানির প্রতিবাদে শনিবার গ্রামের মহিলারা বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। সরেজমিন জানা গেছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার এবং পূর্বশত্রুতা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে হাবিব ফকির ও রিপন ফকিরের মধ্যে বিরোধ চলছিল। এরই জেরে ১০ জুন সকালে দোকানে চা খাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে রামদা, লাঠিসোটা ও বোমা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ঘটে। এতে মহিলাসহ ১৫ জন আহত হন এবং ৩০টি ঘরবাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় কালকিনি থানা ও মাদারীপুর কোর্টে পৃথক মামলা হয়েছে। গ্রেপ্তার এড়াতে পুরুষরা বাড়ি ছেড়েছেন।