আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৬-০৬-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

লক্ষ্মীপুর ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে আহত ১০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি
| শেষ পাতা

বাজেটকে অভিনন্দন জানিয়ে আনন্দ মিছিল করার সময় লক্ষ্মীপুর ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। শনিবার দুপুরে শহরের দক্ষিণ তেমুহনী এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরে আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সরকারের ২০১৯-২০ অর্থবছরের মেগা বাজেট ঘোষণাকে অভিনন্দন জানিয়ে লক্ষ্মীপুর শহরে আনন্দ মিছিল বের করে জেলা ছাত্রলীগ। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন শরীফের নেতৃত্বে জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান প্রযুক্তিবিষয়ক 

সম্পাদক রাসেল মাহমুদ মান্না, ছাত্রলীগ নেতা ইবনে জিসাদ আল নাহিয়ানসহ নেতাকর্মীরা অংশ নেন। মিছিলটি শহরের দক্ষিণ তেমুহনী এলাকায় পৌঁছালে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগ নেতা কাজী বাবলুর অনুসারী ও লক্ষ্মীপুর কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহাদ বিন কামাল মাহি’র অনুসারীদের মধ্যে হাতাহাতি হয়। একপর্যায়ে তা সংঘর্ষে পরিণত হলে সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী মামুনুর রশিদ বাবুল, সোহেল, রিয়াদ হোসেন, সাগর ও রিপনসহ ছাত্রলীগের ১০ নেতাকর্মী উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আহত হন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ সময় আহতদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে সাংবাদিকদের উপস্থিতি দেখে মাথায় ক্ষত নিয়েই ছাত্রলীগ নেতা কাজী বাবলু আহত অনুসারীদের নিয়ে দ্রুত স্থান ত্যাগ করেন।

এ সময় মিছিলে উপস্থিত থাকা ছাত্রলীগের এক কর্মী জানান, মিছিলে একজনের পায়ের চাপে আরেকজনের জুতা ছিঁড়ে যাওয়ার বিষয় নিয়ে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। জানতে চাইলে চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী মামুনুর রশিদ বাবলু মুঠোফোনে জানান, মিছিলের ভেতরে কর্মীদের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভুল বোঝাবুঝি ও সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। পরে তা সমাধান হয়ে যায়।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন শরীফ বলেন, বাজেট ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে আনন্দ মিছিল করা হয়েছে। তবে সংঘর্ষের কোনো ঘটনা ঘটেনি।

লক্ষ্মীপুর শহর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক আবু মুসা জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।