আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৭-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

ওবায়দুল কাদের

সরকারকে বিপদে ফেলতে পদ্মা সেতু নিয়ে গুজব

নিজস্ব প্রতিবেদক
| শেষ পাতা

সরকারকে বিপদে ফেলতে ‘পদ্মা সেতুতে মাথা লাগবে’ বলে গুজব ছড়ানো হচ্ছে অভিযোগ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আন্দোলনে ও নির্বাচনে ব্যর্থ হয়ে বিরোধীরা এখন অপপ্রচারে নেমেছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কর্মিসভা শেষে সাংবাদিকদের সামনে তিনি একথা বলেন। প্রকাশ্যে সরকারবিরোধী তৎপরতা দুর্বল হলেও গোপনে ষড়যন্ত্র হচ্ছে দাবি করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, সরকারকে বিপদে ফেলতে গুজবের ডালপালা বিস্তার করছে। পদ্মা সেতু নিজস্ব অর্থায়নে হচ্ছেÑ এটা তারা সহ্য করতে পারছে না, গায়ে জ্বালা ধরছে। তাই তারা বলে লক্ষ মানুষের মাথা ও রক্তের প্রয়োজন।
পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজে ‘মানুষের মাথা লাগবে’ বলে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত গুজবে বিভ্রান্ত না হতে সম্প্রতি এক স্মারকপত্রের মাধ্যমে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সরকারের সেতু বিভাগ। তার দুই দিনের মাথায় সেতুমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে কথা বললেন।
বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা কি বিভ্রান্ত হয়েছেন যে, মানুষের কল্লা লাগবে। এতো রক্ত দরকার। এসব অপপ্রচার, কি নির্মম নিষ্ঠুর এদের রাজনীতি! আন্দোলনে ব্যর্থ, নির্বাচনে ব্যর্থ, এখন শুরু করেছে অপপ্রচার। অপপ্রচার ছাড়া এদের কোনো পুঁজি নেই। এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
দেশের কোথাও গণতন্ত্র নেই বলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্যের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পদক বলেন, দেশে গণতন্ত্রের কোনো সংকট নেই। গণতন্ত্রের যদি সংকট থাকে সেটা আছে বিএনপিতে। তিনি বলেন, বিএনপি মহাসচিব নির্বাচনে জিতেও সংসদে যোগ দেননি। কিন্তু সেই আসনে উপনির্বাচন দিয়ে বিএনপির যিনি নির্বাচিত হয়েছেন তিনি সংসদে এসেছেন। এই যে স্ববিরোধিতা, এটা কী কোনো গণতন্ত্র?