আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১৭-০৮-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

কসবায় শ্বশুরবাড়ির পুকুর থেকে জামাতার লাশ উদ্ধার

ঝিনাইদহে গলা কেটে নববধূ খুন

আলোকিত ডেস্ক
| দেশ

ঝিনাইদহে গলা কেটে নববধূকে খুন করা হয়েছে। অন্যদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় শ্বশুরবাড়ির পুকুর থেকে জামাতার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরÑ

ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে আয়শা খাতুন মিম নামে নববধূকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। কাস্টভাঙা গ্রামের লিচু বাগান থেকে শুক্রবার তার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। কালীগঞ্জ থানার ওসি ইউনুস আলী জানান, ইদ্রিস আলীর মেয়ে আয়শা খাতুনের সঙ্গে একই উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের হাশেম আলীর ছেলে এখলাস উদ্দিনের ঈদুল ফিতরের পর বিয়ে হয়। প্রেম করে বিয়ে করায় ছেলের পরিবার মেনে না নেওয়ায় আয়শা খাতুন বাবার বাড়িতেই থাকতেন। বৃহস্পতিবার জামাই এখলাস শ্বশুরবাড়িতে এসে বলেন, তার বাড়ি থেকে বিয়ে মেনে নেওয়ায় আয়শাকে নিতে এসেছেন। এরপর তিনি স্ত্রীকে নিয়ে নিজের বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে বেরিয়ে যান। শুক্রবার কাস্টভাঙা গ্রামের মাঠের একটি লিচু বাগানে আয়শার গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়। 
ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার কাইমপুর পশ্চিমপাড়া গ্রামের শ্বশুরবাড়ির পুকুর থেকে রাসেল চৌধুরী নামে এক যুবকের লাশ শুক্রবার উদ্ধার করেছে পুলিশ। রাসেল একই গ্রামের মিজান চৌধুরীর ছেলে। তার পরিবার রাসেলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করার অভিযোগে কসবা থানায় মামলা করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ রাসেলের স্ত্রী ফাতেমা, ফাতেমার বাবা ওয়াদুদ মিয়া, ফাতেমার ভাই রুবেল ও ফাতেমার বড় ভাইয়ের স্ত্রী রহিমা আক্তারকে আটক করেছে। জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে ডেকে নিয়ে যান। পরদিন সকালে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাদের পুকুর থেকে রাসেলের লাশ উদ্ধার করেন। স্থানীয়রা খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। পুলিশ জানায়, তার মাথা এবং শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। কসবা থানার উপপরিদর্শক ফারুক হোসেন জানান, রাসেলের শ্বশুরবাড়ির সঙ্গে বিরোধ নিয়ে বৃহস্পতিবার শালিসি সভা হলেও কোনো মীমাংসা হয়নি। তাদের তিন বছরের একটি সন্তান আছে।