আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৯-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

গোপালগঞ্জে শিক্ষকের নামে মামলা প্রত্যাহার দাবি

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি
| দেশ

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান উত্তম কুমার বাড়ৈসহ দুই শিক্ষকের নামে মামলা প্রত্যাহার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কান্দি ইউনিয়নবাসী এ কর্মসূচি পালন করেন। বুধবার দুপুরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনের সড়কে হাতে হাত ধরে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিভিন্ন সেøাগান দেন মানববন্ধনকারীরা। এ কর্মসূচিতে জেলা পরিষদ সদস্য রীনা ম-ল ও কান্দি ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি কৌশিক রায় বক্তব্য রাখেন। বক্তারা কান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান উত্তম কুমার বাড়ৈসহ দুই বিএসসি শিক্ষকের নামে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। পরে মামলা প্রত্যাহার দাবিতে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন তারা। এ মানববন্ধনে কান্দি ইউনিয়নের তিন শতাধিক নারী-পুরুষ অংশ নেন। বৃহস্পতিবার উপজেলার মাচারতারা পাবলিক উচ্চবিদ্যালয়ের সবুজ ঘরামী নামে দশম শ্রেণির এক ছাত্রকে শ্রেণিকক্ষে পড়া না পারার কারণে গণিত শিক্ষক আশীষ চন্দ্র বড়াল মারধর করেন। এ বিষয় নিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই ইউনিয়নের ধারাবাশাইল বাজারে ইউপি চেয়ারম্যান উত্তম কুমার বাড়ৈর ছোট ভাই মনি মোহন বাড়ৈর সঙ্গে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক নারায়ণ চন্দ্র হালদারের ভাই গজালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক অমূল্য রতন হালদারের সঙ্গে কথাকাটাকাটি হয়। এ ঘটনায় শিক্ষক অমূল্য রতন হালদারের স্ত্রী মনি হালদার বাদী হয়ে কান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান উত্তম কুমার বাড়ৈ, দুইজন বিএসসি শিক্ষক রমেন ম-ল ও ভবতোষ ম-লসহ পাঁচজনের নামে মামলা করেন।