আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৯-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

আলোচনা সভায় বক্তারা

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ছাদ বাগান ধ্বংস নয়

নিজস্ব প্রতিবেদক
| নগর মহানগর

ডেঙ্গুর প্রকোপের জন্য কোনো অবস্থাতেই ছাদ বাগান দায়ী নয়। এর কারণ প্রথমত এডিস মশা পানিতে ডিম পাড়ে না তা গবেষণায় প্রমাণিত। দ্বিতীয়ত ছাদ বাগানের কোনো গাছের পাত্রে একাধারে ৩-৫ দিন পানি জমে থাকে না, থাকলে গাছই মারা যাবে। তাই নগরীর জীববৈচিত্র্য ও উষ্ণতা নিয়ন্ত্রণে অবদান রাখা ছাদ বাগান এডিস মশার জন্য দায়ী নয়। এজন্য ছাদ বাগান ধ্বংস নয় বরং প্রয়োজন এর সম্প্রসারণ এবং সঠিক ব্যবস্থাপনা। বুধবার সকালে পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা) ও বাংলাদেশ গ্রিন রুফ মুভমেন্ট-এর যৌথ উদ্যোগে ‘ডেঙ্গু প্রতিরোধ : ছাদবাগান ও পরিবেশ সুরক্ষা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা এ অভিমত ব্যক্ত করেন।  পবার সেমিনার কক্ষে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পবার চেয়ারম্যান আবু নাসের খানের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ গ্রিন রুফ মুভমেন্টের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. গোলাম হায়দার। বক্তব্য রাখেন পবার সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী. মো. আবদুস সোবহান, সম্পাদক ফেরদৌস আহমেদ উজ্জ্বল, বাংলাদেশ গ্রিন রুফ মুভমেন্টের সহ-সভাপতি মামুনুর রশীদ, সদস্য মুশহেদা খানম, নুসরাত পলি, মাসুম রেজা, জামিল সিদ্দিক, বাংলাদেশ প্ল্যান্ট  নার্সারিমেন সোসাইটির সভাপতি মো. মেসবাহ উদ্দিন, এসো বাগান করির সদস্য জাহিদ হাসান, পবার সদস্য রাজিয়া সামাদ, দিনা খাদিজা, মো. ইলিয়াস হায়দার, কবি কামরুজ্জামান ভূঁইয়া, হিলের সভাপতি জেবুন নেসা, বিসিএইচআরডি চেয়ারম্যান মাহাবুব হক। 

বক্তারা বলেন, ঢাকাসহ সারা দেশে সবুজায়ন আর অক্সিজেনের জোগান দিতে বারান্দা বা ছাদবাগান করার জন্য উৎসাহ-উদ্দীপনা দেওয়া হয়েছিল সিটি করপোরেশন এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে। কিন্তু এখন ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ছাদ বাগান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, যা কোনোভাবেই যুক্তিযুক্ত নয়। কেননা পরিবেশ রক্ষায় সবুজায়নের ভূমিকা অপরিসীম।