আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১২-০৯-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

উন্নয়নের জন্য শান্তি বজায় রাখুন

পুলিশের প্রতি প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
| শেষ পাতা

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য শান্তি ও শৃঙ্খলা অপরিহার্য উল্লেখ করে তা বজায় রাখতে পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার গণভবনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বাংলাদেশ পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্টের পরিচালনায় ‘কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড’ এর তফসিলি ব্যাংক হিসেবে কার্যক্রম পরিচালনার উদ্বোধন করে তিনি এ আহ্বান জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, অর্থনৈতিক উন্নতি করতে হলে দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে হবে। এই শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার দায়িত্ব পুলিশের। আমি আশা করি, যে আন্তরিকতার সঙ্গে আপনারা দায়িত্ব পালন করছেন সেভাবে দায়িত্ব পালন করে যাবেন যেন আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারি। 
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব ড. মুস্তফা কামাল অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন। প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন এবং পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারি বাংলাদেশ কমিউনিটি ব্যাংকের বিষয় ভিডিও প্রেজেন্টেশন উপস্থাপনা করেন। প্রধানমন্ত্রী পরে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে রাজারবাগ পুলিশ অডিটরিয়ামে উপস্থিত পুলিশ সদস্য এবং কমিউনিটি ব্যাংকের গুলশান শাখার সঙ্গে মতবিনিময় করেন। প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়কারী মো. আবুল কালাম আজাদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভুইয়া, ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) বিদায়ী কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ এবং পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
পুলিশের জন্য বিশেষায়িত নতুন এই ব্যাংক নিয়ে দেশে বাণিজ্যিক ব্যাংকের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৯টিতে। পদাধিকার বলে কমিউনিটি ব্যাংকের প্রথম চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।
পুলিশ সদস্যদের জীবনমানের উন্নয়নে আওয়ামী লীগ সরকারের নেওয়া বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, আমরা সব সময় চেষ্টা করেছি আমাদের পুলিশ বাহিনী, যতটুকু সম্ভব তাদের পরিবার-পরিজন যাতে সুস্থ থাকতে পারে। সে কারণেই আমি ট্রাস্ট (পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট) গঠন করে দিয়েছিলাম। পাশাপাশি তাদের যদি কোনো সাহায্য প্রয়োজন হয় শিক্ষা বা চিকিৎসার জন্য, সে সুবিধাটা এই ট্রাস্ট থেকে করে দিয়েছি। এবার আমরা ব্যাংক করে দিলাম।
সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দায়িত্ব পালন করে যাওয়ায় পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে পুলিশ যথেষ্ট দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছে। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে, এ অভিযান আরও জোরদার করতে হবে। রাষ্ট্র পরিচালনার ক্ষেত্রে প্রাকৃতিক দুর্যোগ যেমন আসে, মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগও আসে। সেক্ষেত্রে পুলিশ বিশেষ ভূমিকা পালন করে। মানুষকে সেবা দেওয়ার পাশাপাশি প্রত্যেকটি থানা যাতে সুন্দর থাকে, তা নিশ্চিত করার তাগিদ দেন সরকারপ্রধান। পুলিশকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে প্রশিক্ষণের ওপরও তিনি গুরুত্ব দেন। শেখ হাসিনা বলেন, পুলিশ বাহিনী দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করায় মানুষের একটি আস্থা, বিশ্বাসের জায়গা সৃষ্টি হয়েছে। কমিউনিটি পুলিশিং জোরদার করতে পারলে শান্তি, নিরাপত্তা আরও নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।
পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সাধারণত পুলিশে লোক নিয়োগের ক্ষেত্রে চিরদিন একটা দুর্নাম ছিল। শুধু পুলিশ কেন সবক্ষেত্রে নিয়োগের ক্ষেত্রে ঘুষ-দুর্নীতির বদনাম রয়েছে। পুলিশ এখানে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে এবার। তিনি বলেন, ঘুষ-দুর্নীতিমুক্তভাবে এবার যেভাবে নিয়োগ হয়েছে, তাতে অতি সাধারণ, দরিদ্র পরিবারের ছেলেমেয়েরাও চাকরি পেয়েছে। সেজন্য আমি বিশেষভাবে পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। 
কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিহুল হক চৌধুরী জানান, প্রাথমিকভাবে রাজধানীর পুলিশ প্লাজা কনকর্ডের করপোরেট শাখার পাশাপাশি মতিঝিল, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, হবিগঞ্জ ও চট্টগ্রামে ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে।
৪০০ কোটি টাকা অনুমোদিত এবং ১০০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধন নিয়ে গঠিত কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড ২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবর বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন পায়। ওই বছরের ১ নভেম্বর ব্যাংকটি তফসিলি ব্যাংক হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়।