আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১১-১০-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

শ্রীপুরের মোজাফফরের বাঁশের বাঁশি

সুর তুলছে বহির্বিশ্বেও

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
| দেশ

বাঁশের বাঁশি তৈরিতে নিয়োজিত গাজীপুরের শ্রীপুর এলাকার মোজাফফর। এ বাঁশি এখন বিদেশেও রপ্তানি হয় ষ আলোকিত বাংলাদেশ

১৯৭২ সাল। কিশোর মোজাফফর হাটের দিন বাবার সঙ্গে শ্রীপুর বাজারে এসে ১২ আনায় শখের বশে কিনে নেন একটি বাঁশের বাঁশি। অল্প দিনেই বাঁশির সঙ্গে তার সম্পর্কটা হয়ে ওঠে আত্মিক। ভাগিনার বাঁশিপ্রীতি দেখে তার মামা আবদুস সালাম তাকে ৮ টাকা দিয়ে কিনে দেন একটি ভালোমানের বাঁশি। এরপর নানা প্রচেষ্টায় তিনি শুরু করেন বাঁশি তৈরির কাজ। এখন এটাই তার জীবন ও জীবিকার একমাত্র মাধ্যম।

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার গাড়ারন গ্রামের রিয়াজ উদ্দিন ম-লের ছেলে মোজাফফর ম-ল। দীর্ঘ ৪৭ বছর ধরে নিজ হাতে বাঁশের বাঁশি তৈরি করে বিক্রি করছেন তিনি। প্রতিনিয়তই বাড়ছে তার তৈরি বাঁশির চাহিদা। সে সুবাদে তার তৈরি বাঁশি দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও ডানা মেলেছে। প্রতিবছর তিনি ৩০ হাজার বাঁশি তৈরি করেন। মোজাফফর ম-ল জানান, তিনি বিভিন্ন সাইজের ২৪টি বাঁশি নিয়ে একটি করে সেট তৈরি করেন। বর্তমানে প্রতি সেট বাঁশি তিনি বিক্রি করেন ১২ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকায়। তিনি প্রতিটি বাঁশিতে তার মুঠোফোন নম্বর লিখে দেন। এর সূত্র ধরে ২০১৩ সালে ঢাকার এক ব্যবসায়ীর সহায়তায় তিনি তিউনিশিয়ায় তিন মাসে ১ লাখ ৭০ হাজার বাঁশি বিক্রি করেন। এরপর প্রতিবছরই এশিয়া ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বাঁশি বিক্রি করছেন।