আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১১-১০-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

আবরার হত্যার বিচার বিভাগীয় তদন্ত চান ড. কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক
| নগর মহানগর

আবরার হত্যার বিচারের দাবিতে ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে গণফোরাম আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন ষ পিবিএ

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকা-ের বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করেছেন গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে গণফোরাম আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি তুলে ধরেন তিনি।

ড. কামাল বলেন, আবরারকে যেভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে, তা স্বাধীনতার আগে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর অবস্থা মনে করিয়ে দেয়। যারা রুগ্্ণ তারাই এসব করতে পারে। তিনি বলেন, মত প্রকাশের জন্য এভাবে পিটিয়ে হত্যা করা হাজার বছরের সভ্যতা, ঐতিহ্য, স্বাধীনতার অর্জন ও সংবিধানের ওপর আক্রমণ। সংবিধানে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার কথা স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে।
আবরার হত্যাকা-ের বিচার বিভাগীয় তদন্ত দাবি করে গণফোরাম সভাপতি বলেন, যেখানে বিচার বিভাগের ব্যক্তিরা থাকুন, প্রয়োজন হলে অন্যরাও থাকুন। সাবেক আইজিও থাকতে পারেন। তিনি বলেন, গতানুগতিক তদন্ত কমিটি নয়, সত্যিকার অর্থে স্বাধীন ব্যক্তি, নীতিবান ব্যক্তিদের নিয়ে কমিটি গঠন করা হোক। এ কমিটি গভীরে গিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর সমস্যাগুলো উদঘাটন করবে। আবরারের খুনিদের বিষয়ে ড. কামাল বলেন, ১০ থেকে ১২টা ছেলে, এদেরকে কী বলব আমি? এরা জানোয়ার। আমাদের ছেলেদের আমরা পশুতে পরিণত করছিÑ এটা ভয়াবহ। আমার সঙ্গে একমত না হলে কাউকে পিটিয়ে মারতে হবেÑ এটা ষোলোআনা সংবিধানবিরোধী, এটা রাষ্ট্রবিরোধী, দেশদ্রোহিতা। আমি সেজন্য মনে করি, এটার সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া দরকার। 
অন্যদের মধ্যে আরেক নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক আবু সাইয়িদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান, মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, মহসিন রশিদ, কেন্দ্রীয় নেতা মোশতাক হোসেন, আমিন আহমেদ আফসারি, লতিফুল বারী হামীম ও ফরিদা বেগম উপস্থিত ছিলেন।