আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ১১-১০-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

ছাত্রলীগ এখন নব্য হানাদার বাহিনী বললেন ববি হাজ্জাজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
| শেষ পাতা

ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্র্যাটিক মুভমেন্ট বা এনডিএম-এর চেয়ারম্যান ববি হাজ্জাজ বলেছেন, ছাত্রলীগ আজ নব্য হানাদার বাহিনী। জঙ্গি সংগঠনকে যেমন নিষিদ্ধ করা হয়, তেমনি আজ সাধারণ ছাত্রসমাজ থেকে শুরু করে গণতন্ত্রকামী প্রতিটি মানুষের প্রাণের দাবি, সংস্কার না হওয়া পর্যন্ত ছাত্রলীগের সব ধরনের রাজনৈতিক কর্মকা- নিষিদ্ধ করা হোক। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।  রোববার রাতে আবরার ফাহাদ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বুয়েট শাখার নেতা-কর্মীদের হাতে খুন হন। 

বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে ববি হাজ্জাজ নেতৃত্বাধীন নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল এনডিএম-এর সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক ছাত্র আন্দোলন কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ। সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটি, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, সরকারি বাঙলা কলেজ, তিতুমীর কলেজ ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার বিপুল নেতাকর্মীর স্বতঃস্ফূর্ত 

অংশগ্রহণে বিক্ষোভ সমাবেশে সূচনা বক্তব্য দেন এনডিএম-এর যুগ্ম মহাসচিব মোমিনুল আমিন। ববি হাজ্জাজ বলেন, ‘তরুণ বিশ্বজিৎ থেকে বুয়েটের আবরার, ছাত্রলীগের নৃশংসতার শেষ কোথায়Ñ জাতি আজ জানতে চায়। বিশ্বজিৎ হত্যা মামলায় ছয়জন খালাস পেয়েছে; ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্যোগ বিজ্ঞান ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এহসান রফিকের চোখ জখম করে দিয়েছে; জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ছাত্র জুবায়েরকে হত্যা করেছে; সিলেটের এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে আগুন দিয়েছে; চটগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজ সংগঠনের কর্মী দিয়াজের মরদেহ ঝুলিয়ে দিয়েছে; মৃত্যুর সঙ্গে লড়েছে খাদিজা; হাতুড়িওয়ালা মামুনের বিচার হয়নি; সিট দখলের বলি হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আবু বকর; আর সর্বশেষ হতভাগা ভারতীয় সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে গর্জনের প্রেরণা, দেশমাতৃকার সার্বভৌমত্ব রক্ষার যুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী আবরার ফাহাদ। 
ববি হাজ্জাজ বলেন, অভিন্ন ফেনী নদী থেকে ভারতকে পানি দিতে রাজি হয়েছে বাংলাদেশ। বিদেশ থেকে আমদানি করে ভারতে তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস রপ্তানি হাস্যকর, নজিরবিহীন। কি প্রয়োজন ছিল  প্রধানমন্ত্রীর এ ভারত সফরের, তা আমাদের অজানা। তবে আমাদের প্রাপ্তি আবরারের লাশ, একটি স্বপ্নের মৃত্যু। ছাত্র আন্দোলনের সহ-সভাপতি আবদুল কাদের, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা জুয়েল, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. ফরিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক অনিক আশরাফ বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, এনডিএম দপ্তর সম্পাদক লায়ন নুরুজ্জামান হীরা, যুগ্ম দপ্তর সম্পাদক মো. শাহাদাত হোসেইন, এনডিএম ঢাকা মহানগর উত্তর আহ্বায়ক মো. নাজিম উদ্দিন প্রমুখ।