আজকের পত্রিকাআপনি দেখছেন ৮-১২-২০১৯ তারিখে পত্রিকা

৮ বছরেও ভাতা জোটেনি এক পরিবারের ৪ প্রতিবন্ধীর

ফুলবাড়িয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
| দেশ

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার রাধাকানাই ইউনিয়নের ধুরধুরিয়া গ্রামের হতদরিদ্র শামছুল ফকিরের পাঁচ সন্তানের মধ্যে চতুর্থ সন্তান শরিফা খাতুন শারীরিক প্রতিবন্ধী, তৃতীয় সন্তান আমিরুল হোসেন (২৬) বাক ও শারীরিক প্রতিবন্ধী। তার দুই নাতি শামসুন নাহার (১২) ও সোলমান (২) তারাও শারীরিক প্রতিবন্ধী। হতদরিদ্র একই পরিবারের চারজন প্রতিবন্ধী থাকলেও কারও ভাগ্যে জুটেনি কোনো প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড। প্রতিবন্ধী কার্ডের জন্য প্রায় ৮ বছর যাবত জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে এ পরিবারের সদস্যরা। দিনমজুর পিতা শামছুল ফকির বলেন, আমার সংসারের চারজন প্রতিবন্ধী সন্তান। অন্যের কাম (কাজ) করে সংসারে চাল ডাল কিনতে পারি, কাম না করলে না খেয়ে থাকি। প্রতিবন্ধী কার্ডের জন্য কয়েক বছর ধইরা ঘুরতেছি চেয়ারম্যান মেম্বরের কাছে কেউ কার্ড কইরা দেয় না। প্রতিবন্ধী শরীফা আক্তার জানান, আলিম পাস করেছি, বিএ ভর্তি হয়ে টাকার অভাবে লেখাপড়া করতে পারিনি, কেউ যদি একটি চাকরি ব্যবস্থা করে দিত, তাহলে লেখাপড়ার পাশাপাশি সংসারে কিছুটা হাল ধরতে পারতাম। উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা এহছানুল হক বলেন, পরিচয়পত্র হয়ে থাকলে তারা প্রতিবন্ধী ভাতা কার্ড পাবে, তবে চেয়ারম্যান মেম্বারদের তালিকা দিতে হবে। তাছাড়া আমাদের কিছু করার নেই। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল সিদ্দিক বলেন, প্রতিবন্ধী কার্ডের জন্য তারা আবেদন করলে ব্যবস্থা করা হবে।