logo
প্রকাশ: ১২:০০:০০ AM, রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৮
ছাত্রদলের সভা সমাবেশের পরিবেশ চায় ঢাবি সাদা দল
ঢাবি প্রতিনিধি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের সভা-সমাবেশ ও স্বাভাবিকভাবে কার্যক্রম চালানোর পরিবেশ চেয়েছেন ঢাবির বিএনপি-জামায়াতপন্থি শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দলের আহ্বায়ক অধ্যাপক এবিএম ওবায়দুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, মুক্তবুদ্ধির চর্চাকেন্দ্র ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিন্ন মতাবলম্বীদের বিভিন্নভাবে বঞ্চিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আমরা দল-মত নির্বিশেষে সবার জন্য একটি নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবি করছি। যেখানে সরকারি ছাত্রসংগঠনের পাশাপাশি বিরোধী ছাত্রসংগঠনও নিরাপদে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে। 
শনিবার ঢাবির শিক্ষক ক্লাবে দলটির নবনির্বাচিত কমিটির পরিচিতি, আগামী দিনের কর্মসূচি ও বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় দলটির যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যাপক লুৎফুর রহমান, মোর্শেদ হাসান খান, সাবেক আহ্বায়ক আক্তার খান, প্রচার সচিব সিদ্দিকুর রহমান খানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। 
মতবিনিময় সভায় বুধবার জাতীয় সংসদে ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮’ পাস হওয়ায় উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে সাদা দলের আহ্বায়ক বলেন, বহুল সমালোচিত নিপীড়নমূলক আইসিটি অ্যাক্টের ৫৭সহ ৫টি ধারা বিলুপ্ত করার কথা বলা হলেও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৮, ২৫, ২৮, ২৯ ও ৩১ ধারায় তা আরও কঠোর এবং অধিকতর শাস্তির বিধান রেখে প্রতিস্থাপিত হয়েছে। ডিজিটাল আইনের এসব ধারা প্রচলিত ফৌজদারি দ-বিধির সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এ আইনে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্তর্নিহিত উপাদান ও সংবিধানে দেওয়া মুক্তচিন্তা, বাক ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। 
এ আইনটি মৌলিক অধিকার ও মানবাধিকারেরও পরিপন্থি এবং স্বাধীন গণমাধ্যমের বিকাশের ক্ষেত্রে একটি বড় অন্তরায় হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করা ও নির্যাতন-নিপীড়নের হাতিয়ার হিসেবে এ আইনটির নির্বিচার অপব্যবহার হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তিনি আইনটির সংশোধন ও পুনর্বিবেচনার জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে অনুরোধ জানান। 

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]