logo
প্রকাশ: ১২:০০:০০ AM, বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০১৯
আরও দুই স্থানে দুই শিশুকে নিপীড়নের অভিযোগ
চার জেলায় স্কুলছাত্রী শিশু ধর্ষিত
আলোকিত ডেস্ক

দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণ, যৌন নিপীড়ন ও শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে টাঙ্গাইলে স্কুলছাত্রী, বরিশালে মাদ্রাসাছাত্রী, কুমিল্লা ও বগুড়ায় শিশুকন্যা ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এদিকে আশুলিয়ায় সৎ মেয়েকে শ্লীলতাহানি এবং জয়পুরহাটে প্রতিবেশী খালু কর্তৃক ৬ বছরের শিশুকন্যাকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাছাড়া চট্টগ্রামে ধর্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এছাড়া ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীর ধর্ষণকারীর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। আর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় ৪র্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় এক যুবককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ- প্রদান করা হয়েছে। ব্যুরো ও প্রতিনিধিদের খবরÑ

আশুলিয়া (ঢাকা) : আশুলিয়ায় সৎ মেয়েকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে আবুল কাশেম (৪৫) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাতে জিরাবো পুকুরপাড় এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাকে আদালতে প্রেরণ করে আশুলিয়া থানা পুলিশ। এর আগে আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে তার স্ত্রী বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মেয়েকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ এনে মামলা করেন। এজাহার সূত্রে জানা যায়, ১৫ এপ্রিল রাতে আসামি তার যৌন কামনা চরিতার্থ করার উদ্দেশে সৎ মেয়েটির স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেয় এবং বিষয়টি কাউকে জানালে মেয়েটিকে হত্যার হুমকি প্রদান করে।

জয়পুরহাট : প্রতিবেশী খালু শহিদুল কর্তৃক ৬ বছরের শিশুকন্যাকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। রোববার সদর উপজেলার পূর্ব সুন্দরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত শহিদুল একই গ্রামের মৃত সাত্তারের ছেলে। এ ঘটনা গ্রাম্য সালিশের মাধ্যমে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন স্থানীয় প্রভাবশালীরা। এ ঘটনায় বিচার দাবি চেয়েছেন শিশুটির পরিবার ও এলাকাবাসী। শিশুটির পরিবার ও এলাকাবাসীর অভিযোগে জানা যায়, শহিদুল তার প্রতিবেশী ভাগিনী ৬ বছরের শিশুকে কয়েক দিন আগে গাছের আম দেওয়ার কথা বলে তার নিজ ঘরে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। রোববার সকালে শিশুটিকে ফুসলিয়ে বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় শিশুটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে অভিযুক্ত শহিদুল পালিয়ে যায়। 
লাকসাম (কুমিল্লা) : লাকসামে স্বামীকে দিয়ে শিশুকন্যার বান্ধবীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১৩ এপ্রিল পৌর শহরের উত্তর লাকসাম এলাকার নজির ভা-ারির বাড়িতে। ধর্ষণের শিকার ওই শিশুকন্যা কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার রাতে পুলিশ লাকসাম রেলওয়ে জংশন এলাকা থেকে ধর্ষক আবু তাহের ও সহযোগী স্ত্রী জেসমিন বেগম পাখিকে আটক করেছে। এর আগে শনিবার ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে দুইজনকে অভিযুক্ত করে লাকসাম থানায় মামলা দায়ের করে। মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৩ এপ্রিল দুপুরে তিষা বাসের চালক আবু তাহের খাবারের উদ্দেশে উত্তর লাকসাম এলাকার নজির ভা-ারির বাড়ির ভাড়া বাসায় যায়। কিছুক্ষণ পর তার কন্যার সঙ্গে বান্ধবীও বাসায় আসে। কৌশলে নিজ মেয়েকে অন্যত্র পাঠিয়ে দিয়ে স্ত্রী জেসমিনকে বাসার দরজায় পাহারা বসিয়ে মেয়ের বান্ধবীকে সে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। লাকসাম থানা পুলিশের ওসি মনোজ কুমার দে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।
নাগরপুর (টাঙ্গাইল) : টাঙ্গাইলের নাগরপুরে নবম শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় নাগরপুর থানায় মামলার পর পুলিশ মো. সুমন মিয়া  নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। সুমন পাছ ইরতা গ্রামের আবুল হাসেম ওরফে ননী মিয়ার ছেলে। শুক্রবার রাত ৯টার দিকে উপজেলার সহবতপুর ইউনিয়নের সারাংপুর গ্রামের নির্জন মাঠে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে নাগরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা জানান, ভিকটিমের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে। ভিকটিম নিজেই বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছে। মামলার ভিত্তিতে সুমনকে গ্রেপ্তার করে কোর্টের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। ভিকটিমকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। 
বরিশাল : হিজলা উপজেলায় ৮ম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষিত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিবেশী বখাটে সজিব গাজী ৩০ মার্চ ধর্ষণ করেছে বলে ওই ছাত্রী জানান। মঙ্গলবার ধর্ষিত ছাত্রী এসব অভিযোগ জানিয়ে বরিশাল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। জেলা পুলিশ সুপার এ খবর জানতে পেরে সংবাদ সম্মেলনের পর ওই ছাত্রীকে তার দপ্তরে ডেকে মেডিকেল পরীক্ষার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেন। অভিযুক্ত ধর্ষক সজীব গাজী হিজলার চর মেমানিয়া গ্রামের নুরুল হক গাজীর ছেলে এবং মোস্তাফিজুর রহমান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।
সংবাদ সম্মেলনে ওই ছাত্রী জানান, ৩০ মার্চ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে সজীব বাসায় ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। তখন ছাত্রীটি বাসায় একা ছিল। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এলে সজীব পালিয়ে যায়। পরদিন তার অভিভাবকরা স্থানীয়ভাবে বিচার দাবি করেন। ছাত্রীটি জানান, স্থানীয় এক জনপ্রতিনিধি ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে ধর্ষকের পরিবারের সঙ্গে আপোষরফার প্রস্তাব দেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছাত্রীর বাবা জানান, ১৩ এপ্রিল হিজলা থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ তাদের কম্পিউটারে ধর্ষণ চেষ্টার এজাহার লিখে স্বাক্ষর নেয়। পরে ওই ছাত্রী বরিশাল নারী ও শিশু নির্যাতন অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালে নালিশী মামলা করেন। তবে ছাত্রীর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন হিজলা থানার ওসি মাকসুদুর রহমান। তিনি বলেন, ছাত্রীটি যেভাবে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে সেভাবে এজাহার গ্রহণ করা হয়েছে। 
বগুড়া : গাবতলীতে তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষক উজ্জ্বল মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ। সোমবার রাতে থানা পুলিশ সুকৌশলে নিজ বাড়ি থেকে ধর্ষক উজ্জ্বল মিয়াকে গ্রেপ্তার করে এবং ওই রাতেই শিশুকন্যার পিতা শাহিন আলম বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেছে। গ্রেপ্তার উজ্জ্বল নাড়য়ামালা ইউনিয়নের জয়ভোগা মধ্যপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। মামলা সূত্রে জানা যায়, উজ্জ্বল মিয়া ১৯ এপ্রিল সন্ধ্যায় আবদুল আজিজের ছেলে মহাসিনের নির্মাণাধীন পাকা ঘরে নিয়ে তৃতীয় শ্রেণির স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। গাবতলী মডেল থানার ওসি মো. জাকির হোসেন জানান, মঙ্গলবার ধর্ষক উজ্জ্বল মিয়াকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং ধর্ষিতা শিশুকন্যাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে।
পটিয়া (চট্টগ্রাম) : পটিয়ায় বৈশাখি মেলায় বেড়ানোর কথা বলে এক গার্মেন্ট  কর্মীকে চট্টগ্রাম শহরে নিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় প্রেমিক রিপনকে গ্রেপ্তার করছে পটিয়া থানা পুলিশ। সোমবার উপজেলার কচুয়াই গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে কচুয়াই ইউনিয়নের ১ নং ওযার্ডের শেখ আহমদের ছেলে। এ ঘটনায় ধর্ষিত গার্মেন্ট কর্মীর ভাই দিদারুল আলম বাদী হয়ে ১৮ এপ্রিল মো. রিপন, আবদুল মান্নান ও নুর আহমদ নুরুকে আসামি করে বাকলিয়া থানায় মামলা করেন। পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক রিপনকে তার বাড়ি পটিয়া উপজেলার কচুয়াই গ্রাম থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে সে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। 
ঝিনাইদহ : মহেশপুর উপজেলার সেজিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে চিকিৎসা দেওয়ার নামে অজ্ঞান করে ধর্ষণ করার প্রতিবাদে ও ধর্ষক পল্লি চিকিৎসক সাইফুলের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে বিদ্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচির আয়োজন করে ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। এসময় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও চেয়ারম্যান সামছুল আলম মৃধা, সহকারী শিক্ষক সামসুজ্জোহা পান্নাসহ নেপা ইউনিয়নের যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতারা বক্তব্য রাখেন। বক্তারা, ধর্ষক সাইফুলের দ্রুত শাস্তির দাবি জানান। 
নারায়ণগঞ্জ : রূপগঞ্জ উপজেলায় চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় ফাইজুর রহমান সুমন নামে যুবককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ-, সঙ্গে ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক মোহাম্মদ শাহিন উদ্দিন আসামির উপস্থিতিতে ওই রায় প্রদান করেন। সুমন রূপগঞ্জ উপজেলার ভাউয়ালীপাড়া (পশ্চিমপাড়া) এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]