logo
প্রকাশ: ১২:০০:০০ AM, বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০১৯
একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় মঙ্গলবার প্রকাশিত ‘স্বাস্থ্য খাতে তুঘলকি কা-’ শীর্ষক শিরোনামে যে সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে, তা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেকের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। তিনি ওই সংবাদের শিরোনামে স্বাস্থ্য খাতকে নেতিবাচক দৃষ্টিতে তুলে ধরায় প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। সংবাদে বলা হয়েছেÑ ‘স্বাস্থ্য খাতে তুঘলকি কা- রূপপুরের বালিশ কাহিনিকে হার মানিয়েছে, সরকারি কর্মচারী হাসপাতালের ১৪ তলা ভবনই হয়নি অথচ যন্ত্রপাতি আনতে ছয় সদস্যের প্রতিনিধি দল জার্মানি যাচ্ছে, আগের কেনা যন্ত্রপাতি ব্যবহার না করে পরিত্যক্ত ঘোষণা করে আবার ক্রয়, ৮০ লাখ টাকার সরঞ্জাম কেনা হয় ৭ কোটিতে।’ সংবাদটি পত্রিকাটির প্রথম পাতায় বিশেষ লাল করে শিরোনাম দেওয়া হয়েছে, যার পরিপ্রেক্ষিতে এ সংবাদটির শিরোনাম দেখে দেশের জনমানুষের মনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। এ সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার পত্রিকার সম্পাদকীয়তে এ সংক্রান্ত আরেকটি সংবাদ একইভাবে প্রকাশ করা হয়েছে। সংবাদের শিরোনাম ও তথ্য-উপাত্ত দেখে জনমনে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কে নেতিবাচক ধারণার জন্ম নিচ্ছে। প্রকৃত পক্ষে, রাজধানীর ফুলবাড়িয়ায় অবস্থিত সরকারি কর্মচারী হাসপাতালটি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এখতিয়ারভুক্ত একটি হাসপাতাল। এর সঙ্গে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের কোনো সম্পর্ক নেই। একই সঙ্গে সংবাদে একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে যে ছয়জন প্রতিনিধি যন্ত্র কেনার জন্য বিদেশ সফরের কথা বলা হয়েছে, সেটিও স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের কোনো কর্মকর্তারা নন। অথচ ‘স্বাস্থ্য খাতে তুঘলকি কা-’ হিসেবে শিরোনাম প্রকাশ করায় সম্পূর্ণ ঘটনাটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দায়ভার হিসেবে জনমনে প্রতিফলিত হচ্ছে। এ সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে এমনকি মহান জাতীয় সংসদের সদস্যদের কেউ কেউ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন, যা অত্যন্ত অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা। 
প্রকৃত পক্ষে, বর্তমান সরকার নতুন মেয়াদে দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত দেশের যে কোনো প্রান্তের যে কোনো ধরনের অনিয়ম বা দুর্নীতির বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ দ্রুততার সঙ্গে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এ মন্ত্রণালয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্দেশে শক্তিশালী একটি মনিটরিং সেল গঠন করাসহ প্রয়োজনীয় নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি 

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]