logo
প্রকাশ: ১২:০০:০০ AM, শুক্রবার, জুলাই ১২, ২০১৯
প্রশ্নবিদ্ধ কোহলির অধিনায়কত্ব
স্পোর্টস ডেস্ক

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি ও ভিভিএস লক্ষ্মণ প্রশ্ন তুলেছেন, কেন ধোনিকে সাত নম্বরে ব্যাট করতে পাঠানো হলো? এটিকে একটি বড়সড় কৌশলগত ভুল বলে তারা মন্তব্য করেছেন।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেমিফাইনালে হার্দিক পান্ডিয়া আর দীনেশ কার্তিককে ধোনির আগে ব্যাট করতে পাঠানো হয়েছিল। তার আগেই পাঁচ রানে তিন উইকেট হারায় ভারত। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই ২৪ রানে চার উইকেট হারানোর কারণে মাত্র ২৪০ রানের টার্গেটও তখন অসম্ভব বলে মনে হচ্ছিল। ভিভিএস লক্ষ্মণ হতাশ গলায় বলছিলেন, ‘ধোনিকে পান্ডিয়া আর দীনেশ কার্তিকেরও আগে ব্যাট করতে পাঠানো উচিত ছিল। এটা ভুল স্ট্র্যাটেজি নেওয়া হলো।’
‘ধোনির কাছে কাজটা একেবারে অসম্ভব ছিল না। ২০১১’র বিশ্বকাপের ফাইনালে ধোনি যুবরাজ সিংয়েরও আগে চার নম্বরে ব্যাট করেছিল। সেই বিশ্বকাপটা ভারতের ঘরেই এসেছিল।’ ২০১১’র বিশ্বকাপ ফাইনালে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ধোনি যখন ব্যাট করতে নেমেছিলেন, তার আগে বীরেন্দ্র সেহবাগ, শচিন টেন্ডুলকার আর বিরাট কোহলির গুরুত্বপূর্ণ উইকেটগুলো হারিয়ে ফেলেছিল ভারত। সে ম্যাচে অনেকেই বিস্মিত হয়েছিলেন ধোনির ওই সিদ্ধান্ত দেখে। কিন্তু সেদিন ৭৯ বলে ৯১ রানের একটা অসাধারণ ইনিংস খেলেছিলেন ধোনি।
২০১৮ সালে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ধোনি ব্যাখ্যা করেছিলেনÑ কেন সেদিন তিনি যুবরাজ সিংয়ের আগে ব্যাট করতে নেমেছিলেন। শ্রীলঙ্কার বেশিরভাগ বোলারই চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে আইপিএলে খেলতেন। ওদের বোলিং তাই আমার ভীষণ পরিচিত ছিল। তার ওপরে তখন মুরালিধরন বল করছিল। ওকে নেট প্র্যাকটিসে বহুবার খেলেছি। তাই ওর বল খেলতে কোনো অসুবিধাই হবে না বলে নিশ্চিত ছিলাম। এটাই আমার সেদিন আগে ব্যাট করতে নামার পিছনে সব থেকে বড় কারণ ছিলÑ জানিয়েছিলেন ধোনি। সৌরভ গাঙ্গুলি অবশ্য মনে করেন, বিষয়টা শুধু ধোনির আগে ব্যাটিং করা নয়।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]