ঢাকা ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় গ্রেফতার সিয়াম হারালেন ছাত্রলীগের পদ

প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় গ্রেফতার সিয়াম হারালেন ছাত্রলীগের পদ

বিসিএসসহ ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) সাবেক চেয়ারম্যানের গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী ও তার ছেলে মাদারীপুরের ডাসার উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এবং দুই উপ-পরিচালকসহ ১৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

এ ঘটনায় মাদারীপুরের ডাসার উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি পদ থেকে তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এর আগে ঢাকা উত্তর মহানগর ছাত্রলীগের ত্রান ও দুর্যোগ ব্যাবস্হাপনা সম্পাদক পদ থেকে তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

সোমবার (৮ জুলাই) ডাসার উপজেলা ছাত্রলীগের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, সৈয়দ আবেদ আলীর গ্রামের বাড়ি মাদারীপুর জেলার ডাসার উপজেলায়। আবেদ আলী ও তার ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়ামের ব্যক্তিগত ফেসবুক প্রোফাইল ঘেঁটে দেখা যায়– রাজনৈতিক, সামাজিক কর্মকাণ্ড, দান খয়রাত আর পরহেজগারির নানা খবর। সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলে পাওয়া গেছে তার বিপুল বিত্তবৈভবের খবর। ঢাকায় ও গ্রামে একাধিক বাড়ি, গরুর খামার ও সম্পদের তথ্য মিলেছে তারই ব্যক্তিগত সামাজিকমাধ্যমে। যদিও ব্যবসা-বাণিজ্যের মাধ্যমে বিত্তবৈভব বানিয়েছেন বলে দাবি তার এবং পরিবারের। সবশেষ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তার বাবা আবেদ আলী চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য প্রচারণা চালিয়েছিলেন। তিনি সমাজের বিত্তবান ও প্রভাবশালীদের সঙ্গে নিয়মিত চলাফেরা করতেন। প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিদের সঙ্গেও করতেন উঠবস।

উল্লেখ্য, বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের অনুসন্ধানে উঠে আসে পিএসসির ছয় কর্মকর্তা-কর্মচারীর একটি সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে প্রশ্নফাঁসে জড়িত। অভিযুক্ত কর্মচারীদের মধ্যে একজন পিএসসির চেয়ারম্যানের সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী। প্রশ্নফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার তথ্য সামনে আসার পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় তার বিপুল সম্পদের তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুলে ধরছেন সাধারণ মানুষ।

বিসিএস,প্রশ্নফাঁস
আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত