মুরসিকে আটককারী সেনা কর্মকর্তা এখন প্রতিরক্ষামন্ত্রী

বহুল আলোচিত আরব বসন্তের দানে ক্ষমতায় আসেন মুহাম্মাদ মুরসি। মিশরের ইতিহাসে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রথম প্রেসিডেন্ট তিনি। কিন্তু বছর অতিক্রম করতে না করতেই নিজের নিযুক্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট সিসির হাতেই পদচ্যুত হন মুহাম্মাদ মুরসি।
তবে সিসি এ কাজে যাদের সহযোগিতা পেয়েছেন তাদের ভুলে যাননি। তাদের উপযুক্ত প্রতিদান দিয়েছেন। তাদের অন্যতম সে সময়ের রিপাবলিকান গার্ড রেজিমেন্টের প্রধান মুহাম্মাদ জাকি, যার দায়িত্ব ছিল প্রেসিডেন্ট, প্রেসিডেন্টের পরিবার ও তার ভবনের নিরাপত্তার নিশ্চিত করা।
সম্প্রতি প্রেসিডেন্ট সিসি ৬২ বছর বয়সি মুহাম্মাদ আহমাদ জাকিকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেন।
জাকি তার সামরিক জীবনে বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১২ সালে মুরসির শাসনামলে সিনাইয়ের উত্তরে রাফাহ শহরে মিসরের সীমান্ত বাহিনীর ১৬ অফিসার ও সেনাসদস্য নিহত হওয়ায় সামরিক বাহিনীতে ব্যাপক পরিবর্তন হয়। তখন জাকিকে রিপাবলিক গার্ড রেজিমেন্টর প্রধান করা হয়। সবশেষ ১৪ জানুয়ারি তাকে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়।
মুরসি সমর্থকরা বলেন, ২০১২ সালের ডিসেম্বরে সে একাধিকবার মুরসির বিরুদ্ধে গিয়ে বিরোধীদের সঙ্গে লিয়াজোঁ করেন। এমনকি যার জীবন রক্ষায় তিনি নিয়োজিত তাকেই তিনি জীবনহানির দিকে ঠেলে দেন। প্রেসিডেন্টের প্রাসাদের সামনে ব্রাদারহুডের সমাবেশে নিজের বাহিনী কর্তৃক গুলি ছুড়ে সন্ত্রাসী হামলা বলে চালিয়ে দেন।
মিশরের বিভিন্ন গণমাধ্যম জানায়, প্রেসিডেন্ট মুরসিকে আটকের দায়িত্ব দেওয়া হয় জাকিকে। তিনি মুরসি ও কয়েকজন ব্রাদারহুড নেতার সঙ্গে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে সাক্ষাৎ করে বলেন, ‘আপনারা এখন বন্দি।’
পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘যে জনগণ তোমাদের এখানে নিয়ে এসেছে, তাদের ইচ্ছা বাস্তবায়নের জন্যই আমরা এসেছি।’ তারপর তিনি প্রেসিডেন্ট ও তার সহকর্মীদের প্রেসিডেন্ট রেজিমেন্টের প্রাসাদে আটক করে রাখেন।

সূত্র : আলজাজিরা


পরস্পর দয়া প্রদর্শনে উপদেশ দিন
উসামা বিন জায়েদ (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, ‘নবীজির মেয়ে
বিস্তারিত
যিনি ধনীদের মধ্যে সর্বপ্রথম জান্নাতে
আবদুর রহমান বিন আউফ (রা.) এর স্মৃতি জর্দানের রাজধানী আম্মানের উত্তরের
বিস্তারিত
কীভাবে বুঝবেন আল্লাহ আপনার প্রতি
আল্লাহর সন্তুষ্টি প্রতিটি বিশ্বাসী হৃদয়ের একান্ত চাওয়া। কিন্তু কীভাবে বুঝবেন
বিস্তারিত
আল্লাহর অন্যতম নেয়ামত মাছ
প্রকৃতিজুড়ে এখন চলছে হেমন্তের রাজত্ব। নতুন ধানের নবান্ন উৎসবের পাশাপাশি
বিস্তারিত
রূপে ভরা হেমন্ত
প্রকৃতিতে শীতের আগমনী বার্তা বয়ে নিয়ে এসেছে হেমন্ত। শিশির বিন্দু
বিস্তারিত
প্রাণীবন্ধু গাসসান রিফায়ি
টানা ৩০ বছর বাইতুল মুকাদ্দাস চত্বরের বিড়াল ও পাখিদের খাবার
বিস্তারিত