শায়খ সাইদ রামাদান আল-বুতি

শায়খ সাইদ রামাদান আল-বুতি দামেস্কে একটি পুরোনো বাড়ির চতুর্থ তলায় বাস করতেন। ৮৪ বছরের বৃদ্ধ বয়সেও হাদিস ও তাফসিরের দারস বন্ধ করেননি। ২০১৩ সালের ২১ মার্চ রাতে বাসা থেকে বেরিয়ে দামেস্কের উত্তরনগরী মাজরায় গিয়েছেন, যেখানে অবস্থিত মসজিদুল ঈমানে স্থানীয় মানুষ ও ছাত্রদের জন্য সপ্তাহে দুইবার দারস প্রদান করেন। এশার নামাজের পর প্রায় দেড়শ মানুষের উপস্থিতিতে তার তাফসির চলাকালীন বিদ্রোহীদের একটি গ্রুপ সেখানে বোমা হামলা চালায়।
তিনিসহ ৪৯ ছাত্র ও জনতা শহীদ হন


দাজ্জালের ফেতনা থেকে সাবধান
নবী (সা.) তাঁর উম্মতকে ফেতনা থেকে কঠিনভাবে সতর্ক করেছেন। এ
বিস্তারিত
সন্ত্রাসবাদের কোনো ধর্ম নেই
শ্রীলঙ্কায় নিরাপরাধ মানুষের ওপর নির্বিচার সন্ত্রাসী হামলায় সারাবিশ্বের বিবেকবান মানুষের
বিস্তারিত
আলোর পরশ
কোরআনের বাণী আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘যে বিষয়ে তোমার কোনো জ্ঞান নেই,
বিস্তারিত
দ্বিতীয় কাতার কোথা থেকে শুরু
প্রশ্ন : নামাজের প্রথম কাতার পূর্ণ হয়ে গেলে দ্বিতীয় কাতার
বিস্তারিত
ন তু ন প্র
বইয়ের নাম : রামাদান উদযাপন রচয়িতা : ড. মাওলানা আবু সালেহ
বিস্তারিত
জীবন পাথেয়
আপনি বিপদে পড়ে সর্বশেষ কবে আল্লাহর কাছে ধরনা দিয়েছেন? আল্লাহর
বিস্তারিত