শায়খ সাইদ রামাদান আল-বুতি

শায়খ সাইদ রামাদান আল-বুতি দামেস্কে একটি পুরোনো বাড়ির চতুর্থ তলায় বাস করতেন। ৮৪ বছরের বৃদ্ধ বয়সেও হাদিস ও তাফসিরের দারস বন্ধ করেননি। ২০১৩ সালের ২১ মার্চ রাতে বাসা থেকে বেরিয়ে দামেস্কের উত্তরনগরী মাজরায় গিয়েছেন, যেখানে অবস্থিত মসজিদুল ঈমানে স্থানীয় মানুষ ও ছাত্রদের জন্য সপ্তাহে দুইবার দারস প্রদান করেন। এশার নামাজের পর প্রায় দেড়শ মানুষের উপস্থিতিতে তার তাফসির চলাকালীন বিদ্রোহীদের একটি গ্রুপ সেখানে বোমা হামলা চালায়।
তিনিসহ ৪৯ ছাত্র ও জনতা শহীদ হন


প্রকৃতি ও পরিবেশ রক্ষায় ইসলাম
ইসলামে ফলদ বৃক্ষরোপণ ও ফসল ফলানোকে সবিশেষ সওয়াবের কাজ হিসেবে
বিস্তারিত
বনভূমির প্রয়োজনীয়তা ও আমাদের অবস্থান
মহিমাময় স্রষ্টার কুদরতি হাতের ছোঁয়ায় আমাদের চারপাশে গড়ে উঠেছে সবুজ
বিস্তারিত
সৃষ্টির সেবায় এগিয়ে আসার দায়িত্ব
সেবার অর্থ কারও প্রয়োজনে এগিয়ে যাওয়া ও সাহায্য করা। আর
বিস্তারিত
প্রিয় মুরসি, আপনি আমাদের মাঝে জীবিতই!
আমর দারাজ মিসরীয় সাবেক আন্তর্জাতিকবিষয়ক ও পরিকল্পনামন্ত্রী  আপনি জীবিত! কারণ আপনার
বিস্তারিত
মুরসিকে নিয়ে নতুন তথ্য ফাঁস
মিসরের গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রথম প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের
বিস্তারিত
মার্কিন ড্রোন ভূপাতিতের জের ইরান-যুক্তরাষ্ট্র পাল্টাপাল্টি সাইবার
ওমান উপসাগরে বৃহস্পতিবার তাদের একটি অত্যাধুনিক ড্রোন বিধ্বস্ত করার বদলা
বিস্তারিত