দু’চোখের আলো নিভে গেল বাদশা ফাহাদের

বিশ্বের সম্পদশালী রাষ্ট্র সৌদি আরবের সাবেক প্রেসিডেন্ট, ধন সম্পদ আর প্রাচুর্যের মালিক বাদশা ফাহাদের কথা নয়, বলছি জন্মের পর থেকেই অভাব আর দুঃখকে সাথী করে জন্ম নেয়া পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের ছোট শৌলা গ্রামের ৭ বছরের শিশু বায়োজিদ ওরফে বাদশা ফাহাদের জীবনের গল্প।

মা বাবা শখ করে যখন যার নাম রেখে ছিল বাদশা ফাহাদ তখন কে জানত যে অল্প বয়সেই এই ছেলেকে পাহাড়সম কষ্ট বহন করতে হবে? কেউ ভাবুক আর নাই ভাবুক একদিন হঠৎ করেই দু’চোখের আলো নিভে যায় শিশু বাদশা ফাহাদের।

দিন মজুর আব্দুল মালেক মল্লিকের দুই ছেলে ও পাঁচ মেয়ের মধ্যে মেঝ মেয়ে মাহমুদাকে প্রায় ৯ বছর পূর্বে বিবাহ দেয় একই এলাকার আবুল কালামের সঙ্গে। বিয়ের পরে সে পরিবার নিয়ে চট্টগ্রামে থেকে দিন মজুরের কাজ করতো। বিয়ের দুই বছরের মাথায় অভাবের মাঝেও সুখের সংসারে জন্ম নেয় ফুটফুটে পুত্র সন্তান। আহলাদের সন্তানকে সৌদি বাদশার নামানুসারে নাম রাখেন বাদশা ফাহাদ। বাদশা ফাহাদের জন্মের চার মাসের মাথায় পিতা আবুল কালাম মজুরের কাজ করতে বের হয়ে ট্রাকের নিচে পড়ে মারা যায়। সময়ের ব্যবধানে অভাব অনাটনের মধ্যে ও মা মাহমুদা ছয় বছর বয়সে শিশু বাদশা ফাহাদকে চট্টগ্রামের নজিরিয়া নইমিয়া মাহমুদিয়া সিনিয়র মাদ্রাসায় ভর্তি করিয়ে দেয়।

অল্পদিনেই মাদ্রাসায় মেধাবী ছাত্র হিসেবে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হওয়া শিশু বাদশা ফাহাদ ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসের একদিন মাদ্রাসায় বসে হঠৎা করেই দুচোখে অন্ধকার দেখতে শুরু করলে চট্টগ্রামের পাহারতলী থকে শুরু করে দেশের সকল নামিদামী হাসপাতাল ঘুরে সহায় সম্বল বিক্রি করে প্রায় দেড়লাখের মত টাকা ব্যায় করেছেন মা মাহমুদা ও নানা আব্দুল মালেক মল্লিক।

বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা বলেছেন তার দুটি চোখেরই কর্নিয়া নষ্ট হয়ে গেছে, চোখ ভালো করতে হলে ভারতের চেন্নাই হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে হবে। খরচ হবে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা। এরই মধ্যে এ বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর অন্ধ শিশু বাদশা ফাহাদ চৌকি থেকে পড়ে গেলে তার বাম হাতটি ভেঙে যায়, বর্তমানে তিনি ভাণ্ডারিয়া হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

অসহায় শিশুর দুটি চোখের আলো ফিরিয়ে আনতে তাকে আবার এই সুন্দর পৃথিবী দেখতে মা ও নানা বাদশা ফাহাদের চিকিৎসার জন্য সমাজের স্বহৃদয়বান বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের অনুরোধ জানিয়েছেন। মঠবাড়িয়া উপজেলার অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড মিরুখালী শাখার হিসাব নম্বর-০২০০০০৬১৯৭৩২৪, অথবা নানা আব্দুল মালেক মল্লিকের মোবাইল বিকাশ নম্বর (ব্যক্তিগত) ০১৭২৬১৫৬৯৮৯, নম্বরে সাহায্য পাঠাবার জন্য সকলের কাছে অনুরোধ করেছেন।  


অবরুদ্ধ গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাসপাতালে
অবরুদ্ধ নির্যাতিত এক গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছেন ইউএনও।
বিস্তারিত
ছেলের নির্যাতন সইতে না পেরে
শেরপুরের নকলা উপজেলার বানেশ্বরদী ইউপির কবুতরমারী গ্রামের বৃদ্ধ মোহাম্মদ আলী
বিস্তারিত
বল্লাল রাজার দূর্গের অংশ আবিষ্কার
বঙ্গদেশে ১১৬০-১১৭৯ খিস্টাব্দ পর্যন্ত রাজত্বকারী সেন বংশের ২য় রাজা বল্লাল
বিস্তারিত
সঙ্গে মাদক থাকলেই গ্রেফতার: অতিরিক্ত
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, যার কাছে মাদক থাকবে
বিস্তারিত
লস্করপুর আদর্শ ও একতা যুব
হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লস্করপুর গ্রাম। সমাজের কল্যাণে কাজ করার জন্য
বিস্তারিত
কচুয়ায় ফিল্মি স্টাইলে অপহৃত যুবতী
চাঁদপুরের কচুয়ায় বৃষ্টি (১৬) নামে এক কিশোরীকে ফিল্মি স্টাইলে অপহরণের
বিস্তারিত