‘ধর্ম যার যার, উৎসব সবার’ প্রমাণ করলেন নকলার আ’লীগ নেতাকর্মীরা

‘ধর্ম যার যার, উৎসব সবার’ বঙ্গ বন্ধু কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই উক্তিটি শেরপুরের নকলা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের মাধ্যমে যথাযথ প্রমাণ করেছেন।

উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধভাবে উপজেলার ১৯টি পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করে প্রধানমন্ত্রীর উক্তি ও কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরীর নির্দেশ বাস্তবায়নের জন্য পূজামণ্ডপ পরিচালনা পরিষদের সব সদস্য, পুরোহিত, পূজারী ভক্তবৃন্দ ও হিন্দু সম্প্রদায়ের সব শ্রেণির লোকদের সাথে মতবিনিময় করে তারা সত্যিই প্রমাণ করলেন ‘ধর্ম যার যার, উৎসব সবার’।

বৃহস্পতিবার ও বুধবার এই দুই দিনের রুটিন অনুযায়ী রাত-দিন ঘুরে উপজেলার সব কয়টি পূজামণ্ডপ পরিদর্শন করাসহ পূজামণ্ডপ পরিচালনা পরিষদরে সদস্য, পুরহিত, পূজারী ভক্তবৃন্দ ও হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের সাথে আনন্দমুখর শুভেচ্ছামূলক মতবিনিময় সভা করেন তারা।

পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে তাদের বহরে উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মাহবুবুল আলম সোহাগ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম জিন্নাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক ও উরফা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেজাউল হক হীরা, সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য ছামিউল হক মুক্তা, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক রফিকুল ইসলাম সোহেল, যুগ্ম আহবায়ক এফএম কামরুল আলম রঞ্জু ও রেজাউল করিম রিপন, টালকী ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক বেলায়েত হোসেন আকন্দ, উপজেলা যুবলীগের সদস্য আব্দুল্লাহেল খসরু রুবেল, রফিকুল ইসলাম, হুমায়ুন কবীর বর্ষা, এ কে এম মাহবুবুল আলম সবুজ, আকরাম হোসেন, রাশেদুল হাসান রঞ্জু, মর্তুজ আলী, সোহেল রানা, আনোয়ার হোসেন শিপন, শিহাব উদ্দিন, ফরিদ উদ্দিন ও আদিল আহমেদ পল্লবের নাম উল্লেখযোগ্য। তাছাড়া প্রতিটি পূজা মন্ডপ পরিদর্শন কালে উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ, ছাত্রলীগ ও তাদের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ, বিভিন্ন গনমাধ্যমের সংবাদিক, আনসার ও গ্রাম পুলিশ সদস্যদের উপস্থিত ছিল লক্ষ্য করার মতো।

এর অংশ হিসেবে ১৮ অক্টোবর রাতে চন্দ্রকোণা ইউনিয়নের পূজামণ্ডপ পরিদর্শনকালে চন্দ্রকোণা ইউনিয়নের দুইবারের সফল চেয়ারম্যান সাজু সাঈদ সিদ্দিকী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোখলেছুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিন্টু, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি বেলাল আহমেদ শিপু, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক আজিম, ইউপি সদস্য আব্দুস সামাদ কেনু, জালাল উদ্দিন ও মাহবুবুল আলম রানা, আওয়ামী লীগ নেতা মোকসেদুর রহমান মস্টারসহ চন্দ্রকোণা ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক ও অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

তাছাড়া বেশ কয়েকটি পূজা মন্ডপ পরিদর্শন কালে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান লিটন, সহ-সভাপতি ফেরদৌস রহমান জুয়েল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক খলিলুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর রশিদ সরকার, নকলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান সুজা, পাঠাকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ ফয়েজে মিল্লাত, নকলা ডিবেটিং সোসাইটির সভাপতি আলমগীর আজাদ ও সাধারন সম্পাদক মজিবুর রহমান, জাতীয় শ্রমিকলীগ নকলা উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক বাবু শ্যামল সূত্র ধর ও সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান মিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অন্যদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আমিনুল ইসলাম ও নকলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল বাশার মিয়া সঙ্গীয় পরিদর্শক ও ফোর্স নিয়ে আলাদা ভাবে সব কয়টি পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন। এতেই প্রমান হয় যে, নকলা উপজেলায় দুর্গোৎসব শুধু হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিলনা। এই উৎসব যেন- সব ধর্মের, সব পেশা শ্রেণি জনগনের।


৩১০ বার কানে ধরে ওঠ-বস,
খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে প্রধান শিক্ষকের হাতে নির্যাতনের শিকার হয়ে চিকিৎসার জন্য
বিস্তারিত
ঘরে ঢুকে স্বামী সেজে প্রতিবন্ধী
এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধি নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছে গোপালগঞ্জে। এ ঘটনায়
বিস্তারিত
সিইউএসটির প্রথম উপাচার্য হলেন পিরোজপুরের
খুলনা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) সাবেক অধ্যাপক ড. মোঃ মঞ্জুর হোসেন
বিস্তারিত
বগুড়া সদর উপনির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর
বগুড়া সদর উপনির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী গোলাম মোঃ সিরাজের গণসংযোগে হামলা
বিস্তারিত
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন ও
আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয়
বিস্তারিত
ধর্ষণের এক বছর পর জীবন
টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ধর্ষণের এক বছর পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় ধুঁকে ধুঁকে
বিস্তারিত