নতুন গোয়েন্দা আখ্যান

অলোকেশ রয় প্রাইভেট ডিটেকটিভ। চৌকস, সাহসী ও মেধাবী এ গোয়েন্দা একসময় সরকারি চাকরি করতেন। কিন্তু এখন তিনি পেশাদার গোয়েন্দা। শার্লক হোমস ও ফেলুদাকে তিনি আদর্শ মানেন। ক্রাইম রিপোর্টার শুভজিত ও আর্কিটেক্ট উর্বী তাকে রহস্য অনুসন্ধানে সাহায্য করেন। জলপিপি ও কফিমেকার উপন্যাসে আমরা অলোকেশকে দেখি দুর্দান্ত এক সত্যান্বেষীর ভূমিকায়। পাঁচ ফুট আট ইঞ্চি হাইট, উজ্জ্বল গায়ের রং, সুঠামদেহী এ গোয়েন্দা বস্তুত ‘কফিকোলিক’। কফি না খেলে তার মগজ খোলে না। তিনি অস্ত্রশস্ত্র কম ব্যবহার করেন, বরং ঘিলু খাটান বেশি। এরই ধারাবাহিকতায় আসছে অলোকেশের নতুন গোয়েন্দা আখ্যান ‘আলিম বেগের খুলি’। লিখেছেন অরুণ কুমার বিশ্বাস। 


ভাতঘুম
সুমন রহমান লাজুক ভঙিতে হাসে। তার মাথাটা নুয়ে আসে বুকের
বিস্তারিত
কাঠমান্ডুর দরবারে
নেপালের কাঠমান্ডুতে অবস্থিত হনুমান ধোকা দরবার ১৯৭৯ সালে ইউনেস্কোর বিশ্ব
বিস্তারিত
কবিতা
কাজী জহিরুল ইসলাম গৃহগল্প দাঁড়াবার জন্য কিছুটা সময় নেয় এরপর টুপ
বিস্তারিত
গণসমুদ্রচোখ আমাকে পাহারা দেয়
দাগহীন আত্মসমর্পণ, গোটা থানকুনি বাঁক তা দিচ্ছে। ধুলোর গায়ে-বেদনায়, প্রয়াণে;
বিস্তারিত
পথিক
তোমার বাস কোথায় গো পথিক, দেশে না বিদেশে আমি তোমায়
বিস্তারিত
নদী এবং নদীরা
হ্যাঁ, মেয়েটির নাম ছিলÑ নদী! পারভীন জাহান নদী। হয়তো আরও
বিস্তারিত