প্রিয় শিল্পীকে শেষ বারের মতো দেখতে ভক্তের ঢল

শেষ বারের মতো চট্টগ্রামের নানা বাড়িতে আনা হয়েছে কিংবদন্তি সঙ্গীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর নিষ্প্রাণ দেহ। শনিবার (২০ অক্টোবর) সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে ইউএস-বাংলার একটি ফ্লাইটে শাহ আমানত বিমানবন্দরে মরদেহ পৌঁছায়। সেখানে ১০টা ৫০ মিনিটে মরদেহটি গ্রহণ করেন চট্টগ্রামের সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। পরে ১১টা ১০ মিনিটে মরদেহবাহী গাড়ি দক্ষিণ পূর্ব মাদারবাড়িতে আইয়ুব বাচ্চুর নানা বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেয়।

নানার বাড়ি মাদারবাড়িতে নেয়ার পর থেকে প্রিয় শিল্পীকে শেষবারের মতো এক নজর দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে হাজির হচ্ছে হাজারো ভক্ত। পূর্ব মাদারবাড়ির বালুর মাঠে আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও ভক্তকুলকে তাকে এক নজর দেখানোর জন্য করা হয়েছে প্যান্ডেল। 

গাড়ির পাশেই দাঁড়িয়ে বাবার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর ছেলে আহনাফ তাজওয়ার। 

তাজওয়ার বললেন, জীবদ্দশায় কোনও ভুল করে থাকলে বাবাকে ক্ষমা করে দেবেন।

এদিকে বিশৃঙ্খলা এড়াতে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন শিল্পীর নানার বাড়িতে ভিড় না করার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেন এবং তিনি সবকিছু তদারকি করছেন। 

তিনি বলেন, আইয়ুব বাচ্চু চট্টগ্রাম তথা দেশের সম্পদ ছিল। তার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। তাকে স্মরণ করে আমরা তার স্মৃতি রক্ষায় উদ্যোগ নিয়েছি এবং করপোরেশনের তত্ত্বাবধায়নে দাফনের ব্যবস্থা নিয়েছি।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আইয়ুব বাচ্চুর গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার খরণা ইউনিয়নের হলেও তিনি ছোটকাল থেকে বড় হয়েছেন চট্টগ্রাম শহরে। নগরীর ফিরিঙ্গী বাজার ও এনায়েত বাজারে তাদের বাড়ি থাকলেও তিনি থাকতেন নগরীর মাদারবাড়ির নানার বাড়িতে।

জানা যায়, বাদ আসর চট্টগ্রামের জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ প্রাঙ্গণে তার জানাজা হবে। তারপর মায়ের কবরের পাশে তাকে সমাহিত করা হবে। বাচ্চুর শেষ ইচ্ছা ছিল তার মায়ের পাশে যেন তাকে কবর দেয়া হয় বলে জানান তার মামা আবদুল আলীম লোহানী। 

এর আগে শনিবার সকাল ১১টার দিকে ইউ এস বাংলার ফ্লাইটে তার মরদেহটি চট্টগ্রামে নেয়া হয়। মরদেহের সঙ্গে তার প্রবাসী স্ত্রী, দুই সন্তান আহনাফ তাজওয়ার ও মেয়ে ফাইরুজ সাফরাসহ ২১ জন ছিলেন। আইয়ুব বাচ্চুর দুই প্রবাসী সন্তান গতকাল রাতেই বিদেশ থেকে আসছেন। সকাল ৯টা ১০ মিনিটে তার মরদেহ ঢাকা স্কয়ার হাসপাতালের হিমাগার থেকে বিমানবন্দরে নেয়া হয়।

এর আগে গতকাল শুক্রবার সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে নেয়া হয় কিংবদন্তি ব্যান্ড শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ। জাতীয় ঈদগাহে জানাজা ছাড়াও আরও দুটি জানাজা হয় ঢাকায়।

বৃহস্পতিবার সকালে সাড়ে ৮টায় হৃদরোগের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন আইয়ুব বাচ্চু। সকাল সোয়া ৯টায় তাকে অচেতন অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ৯টা ৫৫ মিনিটে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।


অন্তরঙ্গ অবস্থায় ক্যামেরাবন্দি দীপিকা-রণবীর
অন্তরঙ্গ অবস্থায় ক্যামেরাবন্দি হয়েছেন বলিউডের বিউটিকুইন দীপিকা পাডুকন ও হার্টথ্রোব
বিস্তারিত
‘জোছনাময়ী’ মতো আমি অনেক স্বাধীনচেতা
ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী আশনা হাবিব ভাবনা। নিখুঁত অভিনয় ও
বিস্তারিত
দিতিকে স্মরণ করবে এফডিসি
তিন বছর আগে প্রয়াত হয়েছেন কালজয়ী অভিনেত্রী পারভীন সুলতানা দিতি।
বিস্তারিত
ঈদ মাতাবে শাকিব খানের চার
ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে বিনোদন। আর এই বিনোদনের সবচেয়ে
বিস্তারিত
অভিনেতা রমেন রায় আর নেই
ক্যান্সারের কাছে হেরে না ফেরার দেশে চলে গেলেন ‘বাঞ্ছারামের বাগান’
বিস্তারিত
তবে কি সৃজিতের সঙ্গে মিথিলার
টিভি অভিনেত্রী রাফিয়া রশিদ মিথিলার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে দেশি মিডিয়ায়
বিস্তারিত