বিএনপি মানেই ধ্বংস, হত্যা, লুটপাট, দুর্নীতি: ত্রাণমন্ত্রী

ক্ষমতায় থেকে বিএনপি-জামায়াত লুটপাট আর সন্ত্রাসবাদ কায়েম করেছে মন্তব্য করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম এমপি বলেছেন, স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না বলেই বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নতি হয় না। তারা লুটপাটে ব্যস্ত থাকে। ক্ষমতাকে দেশসেবার সুযোগ হিসেবে দেখে বলেই আওয়ামী লীগ সরকার আমলে উন্নতি হয়েছে। উন্নয়নের ধারা বজায় রাখতে আবারও নৌকায় ভোট চান মায়া চৌধুরী।

শনিবার বিকেলে মতলব উত্তর উপজেলার ষাটনল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

ত্রাণমন্ত্রী মায়া চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগ মানেই উন্নয়ন। আর বিএনপি মানেই ধ্বংস, হত্যা, লুটপাট, দুর্নীতি। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের সুফল ভোগ করছে জনগণ। এই উন্নয়ন বজায় রাখতে আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকে ভোট দেবেন।

মন্ত্রী মায়া বলেন, জনগণের জন্য কাজ করতে এসেছি। জনগণকে দিতে এসেছি। দেশকে উন্নয়ন করা, দেশের ভাগ্য উন্নয়ন করা এটাই আমাদের কাজ। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে উন্নয়ন হয়ম বিএনপি আসলে উন্নয়ন হয় না।

মায়া বলেন, আমরা ক্ষমতায় আসলেই দারিদ্র্য থেকে মুক্তি। আমরা দারিদ্র্য থেকে দেশকে মুক্ত করব। আমরা চাই দেশ এগিয়ে যাক। বিশ্বসভায় দেশ মর্যাদা নিয়ে এগিয়ে চলুক। আমরা দেশের উন্নয়ন চাই। বিএনপি আসা মানেই দেশকে ধ্বংস করা। আওয়ামী লীগ মানেই শান্তি।

মায়া আরো বলেন, সরকারে ধারাবাহিকতা আছে বলেই উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। উন্নয়নের জন্যই আওয়ামী লীগে ভোট চাই। আপনাদের কাছে ওয়াদা চাই। ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চাই। নৌকা মার্কায় ভোট দেন আপনাদের সোনার মতলব উপহার দেব।

নেতা-কর্মীদের ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ঘুমকে হারাম করে প্রতিটি ঘরে ভোটারের কাছে গিয়ে সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে ভোট চাইতে বলেন মন্ত্রী মায়া।

শনিবার বিকেলে ষাটনল ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স মাঠে ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান একেএম শরীফ উল্লাহ সরকারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ সরকারের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন- কেন্দ্রীয় আ.লীগ নেতা সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনজুর আহমদ, উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, ছেংগারচর পৌরসভার মেয়র আলহাজ রফিকুল আলম জজ, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নিলুফা আক্তার।

আরো বক্তব্য রাখেন- আ.লীগ নেতা আনিসুল হক, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক টিটু খান ও ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান দোলন।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম হাওলাদার, উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী ইলিয়াছুর রহমান, উপজেলা আ.লীগের নেতা বোরহান উদ্দিন মিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম সরকার ইমন, পৌর আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান ঢালী, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সলিম উল্লাহ বারী সোহেল চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মিনহাজ উদ্দিন খান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সভাপতি কামরুল হাসান মামুন, দুর্গাপুর ইউপি চেয়ারম্যান দেওয়ান আবুল খায়েরসহ উপজেলা, ইউনিয়ন আ.লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।


৩০ ডিসেম্বর ধানের শীষের বিপ্লব
ঐক্যফ্রন্ট সমন্বয়কারী ও কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্যা বুলু বলেন,
বিস্তারিত
তরুণ আর নারীরাই হবে বিজয়ের
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল
বিস্তারিত
কালিহাতীতে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলন,
টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভাধীন এলেংজানী নদীতে অবৈধ ড্রেজার দিয়ে
বিস্তারিত
গফরগাঁওয়ে আ.লীগের বিশাল নির্বাচনী মিছিল
ময়মনসিংহ-১০ (গফরগাঁও) আসনের বর্তমান এমপি আওয়ামী লীগের প্রার্থী ফাহমী গোলন্দাজ
বিস্তারিত
জনগণের ভোটে এমপি হতে চাই:
প্রতীক বরাদ্দ পেয়েই দ্বীপ জেলা ভোলায় উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে নির্বাচনী
বিস্তারিত
মানিকগঞ্জে অস্ত্রের আঘাতে এসএসসি পরীক্ষার্থী
মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলার জাফরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী লাকী ঘোষকে
বিস্তারিত