ওস্তাদ-সাগরেদ প্রশিক্ষণে সাবলম্বী

বাংলাদেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে বিভিন্ন কর্মকান্ডের মধ্যে ওস্তাদ-সাগরেদ প্রশিক্ষণ সরকারের এক ব্যতিক্রমি উদ্যোগ। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রকল্পের কারিগরি সহায়তায় এবং সমাজসেবা অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে দেশের বিভিন্ন জেলা উপজেলার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে ওস্তাদ-সাগরেদ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে মানব সম্পদে পরিণত করা হচ্ছে। এর ধারাবাহিকতায় শেরপুরের নকলায় ৬ মাস মেয়াদী ওই ওস্তাদ-সাগরেদ প্রশিক্ষণে অন্তত ৬০ পরিবার সাবলম্বী হয়েছে।

এই প্রকল্পের আওতায় আগ্রহী সেলুন শ্রমিক, বাঁশ-বেত শ্রমিক ও লৌহজাত পণ্যের শ্রমিকদের (কামাড়দের) প্রশিক্ষিত করে গড়ে তুলা হচ্ছে। দিন দিন কমছে বেকারত্ব ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সংখ্যা। প্রতিটি থানা বা উপজেলায় ১০টি কেটাগরিতে কমপক্ষে ১০টি করে প্রশিক্ষন কেন্দ্রের মাধ্যমে একজন ওস্তাদের আওতায় ২জন করে সাগরেদ ৬মাস মেয়াদি এই প্রশিক্ষনের সুযোগ পেলে প্রতিটি থানায় বছরে অন্তত ৪০০ জন বেকার সাগরেদ কাজে অভিজ্ঞ হবেন। ফলে সারা দেশের ৬৪ জেলা, ৪৯২ উপজেলা ও ৬৪১টি থানায় বছরে প্রায় ৫ লাখ নতুন এবং প্রশিক্ষিত কর্মজীবী তৈরি হবেন।

উপজেলা সমাজসেবা অফিস সূত্রে জানা গেছে, নকলায় ৭টি সেলুনে, ২টি কামাড়ের দোকানে এবং অন্তত ১১টি বাঁশ-বেতের পন্য নির্মান দোকানে একজন করে ওস্তাদ, ২জন করে সাগরেদকে হাতে কলমে প্রশিক্ষন করাচ্ছেন। এতে করে উপজেলায় ২০ ওস্তাদ ৪০ জন সাগরেদকে স্বাবলম্বী হতে সহায়তা দিচ্ছেন। ৬ মাসের ওই প্রশিক্ষন শেষে আজ সবাই নিজ নিজ দোকানের মালিক হয়েছেন। ফলে ৬ মাসের ব্যবধানে উপজেলার অন্তত ৬০টি প্রান্তিক পরিবার স্বাবলম্বী হয়েছেন। তারা আজ পরিবার পরিজন নিয়ে সুখে শান্তিতে জীবন কাটাচ্ছেন।

কাজ শিখতে ও শিখাতে নতুন সাগরেদ ও পুরাতন ওস্তাদদের উৎসাহিত করতে সরকার অভিনব কৌশল অবলম্বন করে। সরকারের পক্ষ থেকে সমাজসেবা অফিসের মাধ্যমে প্রতি ওস্তাদদের প্রতি মাসে ৮০০ টাকা করে এবং প্রতি সাগরেদদের ১ হাজার ৬৩০ টাকা করে ৬ মাসব্যাপি নিয়মিত মাসিক ভাতা প্রদান করা হয়।

ঝুমুর সিনেমা হল মোড়ে মতি হেয়ার এন্টারপ্রাইজ’র মালিক তথা ওস্তাদ মতি মিয়াসহ বেশ কয়েক জন সাগরেদদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সরকারের এমন মহৎ উদ্যোগের ফলেই তারা আজ নিজের পায়ে দাঁড়াতে পেড়েছেন। প্রতিটি সাগরেদ পরিবারের সদস্যরা সুখে শান্তিতে দিনাতিপাত করছেন। তারা হয়েছেন একটি স্বাবলম্বী পরিবারের প্রধান। তাদের সন্তানরা অন্যান্য পূর্বের স্বাবলম্বী পরিবারের শিক্ষার্থীদের সাথে পাল্লা দিয়ে সু-শিক্ষা গ্রহনে আগ্রহী হয়েছে। সবার সাথে তাল মিলিয়ে চলছে ওস্তাদ-সাগরেদ পরিবারের শিক্ষার্থীরা।

ইউনিয়ন সমাজ কর্মী ও ভারপ্রাপ্ত অফিস সহকারী মো. ছায়েদুর রহমান এবং ইউনিয়ন সমাজকর্মী ও ভারপ্রাপ্ত ফিল্ড সুপারভাইজার ফাতেমা খাতুন জানান, উপজেলার ৭টি সেলুনে, ২টি কামাড়ের দোকানে ও ১১টি বাঁশ-বেতের পণ্য নির্মাণ দোকানে একজন ওস্তাদের মাধ্যমে প্রতিটি দোকানে ২ জন করে সাগরেদকে হাতে-কলমে প্রশিক্ষন দেওয়া হয়েছে। প্রশিক্ষন পরবর্তী সময়ে নিজে দোকান দিয়ে সাগরেদরা সবাই স্বাবলম্বী হয়েছেন।

উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মো. তানজিল আহমেদ চৌধুরী জানান, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে সরকারের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের মধ্যে ওস্তাদ-সাগরেদ প্রশিক্ষণ এক ব্যতিক্রমি উদ্যোগ। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের কারিগরি সহায়তায় এবং সমাজ সেবা অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে ওস্তাদ-সাগরেদ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের মাধ্যমে প্রান্তিক সবাইকে মানব সম্পদে পরিণত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে শতভাগ সফলতার দেখা মিলেছে বলে তিনি জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিাসার জাহিদুর রহমান বলেন, সরকারের এই মহৎ উদ্যোগটি সারা দেশ ব্যাপী দ্রুত সম্প্রসারণ করতে পারলে দেশের মধ্যে প্রান্তিক জনগোষ্ঠী বলতে কিছু থাকবে না। ফলে আমরা হব মধ্যম আয়ের বা উন্নত জাতির নাগরিক।


হলুদ ফুলে কৃষক লাল
কৃষকের বিস্তৃর্ণ মাঠজুড়ে হলুদ সরিষা ফুল। মৌ মৌ গন্ধ ছড়িয়ে
বিস্তারিত
বিএডিসি’র গোলআলুতে ঘোর সংসারের চাকা
শেরপুরের নকলা উপজেলার চরাঞ্চলসহ বিভিন্ন এলাকার কৃষকরা বীজ উৎপাদনের জন্য
বিস্তারিত
কৃষিতে অংশগ্রহণ বাড়লেও, বেতনবৈষম্যের স্বীকার
শেরপুরের নকলা উপজেলায় কৃষিকাজে নারীদের অংশ গ্রহন দিন দিন বাড়ছে।
বিস্তারিত
সৃজনশীলতার সাথে এক নতুন দিগন্তে
সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলাটা ছোট বেলাতেই শিখেছি। তাই সংসারের
বিস্তারিত
পাবনায় চরাঞ্চলে সবজি চাষে কৃষকের
পাবনায় পদ্মা নদীর মাঝে জেগে উঠা চরে এবারে সবজির বাম্পার
বিস্তারিত
জৈন্তাপুরের লাল শাপলার বিল পর্যটকদের
একটি পিচঢালা পথ চলে গেছে গ্রামের শেষ মাথায়। অনেক দূর
বিস্তারিত