ভোর ও সন্ধ্যার শব্দের কথারা

নৈঃশব্দ্যের কাছে আমার কিছু শব্দ জমা ছিল 
সেইসব শব্দ ছিল মূক ও বধির। তবে চোখ দুটি যেন ঈগল-বাজপাখি।

কুয়াশার প্যারাশুট গায়ে একে একে নেমে আসে ভোর
শিকারি বেড়ালের মতো হেঁটে বেড়ায় পুরোনো শহরের অলিতে-গলিতে,
ঈগল ও বাজপাখি চোখ দেখে যায় ভোরের আনাগোনা;
অথচ সন্ধ্যা হলেই কোনো এক নামহীন নিশাচর ডেকে যায়।
হয়তো সেটি খুঁড়–লে প্যাঁচা, নয়তো অন্য কিছু। শব্দেরা ঠিক শুনতে পায়।


নিস্তব্ধ অন্তরে
তুমি আছো নিস্তব্ধ অন্তরে আমার অন্তরের দেবালোকে। পাইনি বলে আজও
বিস্তারিত
মধ্য রাতের ইচ্ছে
বৈশাখের মধ্যরাতে আমি অপেক্ষা করছিলাম কোনো এক সম্পূর্ণ কবির জন্য দু’হাত
বিস্তারিত
চিঠি
ঢাকা শহর এক আশ্চার্য শহর বটে পাহাড় নেই, শাল মহুয়া
বিস্তারিত
বিমিশ্র প্রচ্ছদে সমুদ্র রূপ
পাহাড় মুখ অবলোকন আসা যাওয়ার স্বরচিত সমুদ্র পথে পারাপার যান
বিস্তারিত
সুতোয় বেঁধো না
তোমার হস্তের নাটাই সুতোয় বেঁধো না আমায়  প্রিয়তম আমাকে সুতোকাটা
বিস্তারিত
নমস্য দীর্ঘশ্বাস
নমস্য দীর্ঘশ্বাস, তোমাকে পুনরায় নমস্কার ঘোলা চাঁদ পা-ুরতায় তোমার এমন
বিস্তারিত