ব্যাঙবাজি

 

ধুত্তরি ছাই ভাল্লাগে না কেমনে সময় কাটাই
পাই না খুঁজে হাতের কাছে লাটিম ঘুড়ি লাটাই
রাজীব, কানাই খেলার মাঠে করছে বাজিমাত
নেয় না আমায় নিলেও বলেÑ তুই হলি দুধভাত।
 
তাই বসে রই পুকুর পাড়ে শান বাঁধানো ঘাটে
সবুজ পাতায় লাল পিঁপড়ে মিছিল নিয়ে হাঁটে
হাঁটতে হাঁটতে ডিগবাজি খায় লাল পিঁপড়ের দল
আহ্ কী মজার জীবন ওদের আনন্দ নির্মল।
 
আমি তখন কী আর করি কলসি ভাঙা চাড়া
জড়ো করে শান্ত জলের বুকটাতে দিই নাড়া
হাত ঘুরিয়ে জলের বুকে ফেলছি চাড়া যেই
বলল চাড়াÑ এরচেয়ে মজার আনন্দ আর নেই।
 
কলসি ভাঙা চাড়া আমার ডিগবাজি খায় জলে
আবার মারো, আবার মারো, চাড়া আমায় বলে
জলে ছোড়ার পরে ওটা আর থাকে না চাড়া
চাড়া তখন ব্যাঙ হয়ে যায়
আমি ডাকিÑ দাঁড়া,
চাড়া কী আর দাঁড়ায়?
ব্যাঙ বাজিতে মাটির চাড়া জলের তলে হারায়।


একুশ তুমি
একুশ তুমি মাতাল হাওয়া, বসন্ত ফাগুন; বাংলা মায়ের অশ্রু ঝরা বুকেরই
বিস্তারিত
একুশ
একুশ আমার স্বপ্ন দেখার অনেক বড় আকাশ একুশ আমার মাতৃভাষার একটি
বিস্তারিত
ফাগুন এলো সবুজ দেশে
গাছের শাখে ফুল ফুটেছে কোকিল ডাকে ঐ, ফাগুন এলো আকাশজুড়ে, মেলায়
বিস্তারিত
তোমাদের জন্য মেলার নতুন বই
  আলমগীর খোরশেদের শেওড়া গাছের ভূত বের হয়েছে আলমগীর খোরশেদের শিশুতোষ বই
বিস্তারিত
লালপরী
লালপরী ঝরনার জলে নেমে এলো। তার ডানা দুটি খুলে রাখল।
বিস্তারিত
শীতের ছড়া
কুয়াশার চাদরে শিশিরের আদরে ঘাসটা, শিশিরের কণা-ভারে ফিরছিল বারেবারে পাশটা। খেজুরের মিঠা
বিস্তারিত