বিএনপির সঙ্গে নো এন্ড নেভার: বি. চৌধুরী

সাবেক রাষ্ট্রপতি একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, আপনাদের দেখে খুব ভালো লাগছে। আপনাদের দেখে ঐক্যের আভাস পাচ্ছি। দেশপ্রেম দেখতে পাচ্ছি, তাতে জাতি উদ্বুদ্ধ হবে। খুব আনন্দিত আমি। সবসময় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধা করেছি। সবসময় বলেছি, বাংলাদেশের স্বাপ্নিক পুরুষ যিনি, স্বপ্ন দেখেছেন যেই মানুষটি সবার আগে, তার নাম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সাথে যার বিশ্বাসঘাতকতা করেছে, সুন্দর মানচিত্রকে যারা শ্রদ্ধা করতে জানেন না, মুক্তিযুদ্ধকে যারা স্বীকৃতি দেয় না, ৩০ লাখ শহীদের রক্তে ভেজা এই মাটিকে যারা চুমু দিতে দ্বিধাবোধ করে, তাদের সাথে কিছুতেই রাজনীতি করব না। আমরা বলেছি, বিএনপির সঙ্গে নো এন্ড নেভার, স্বাধীনতারবিরোধীদের সঙ্গে ঐক্য করব না।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) বিকালে মন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার বীরতারা এলাকার নিজ বাড়িতে চার দিনব্যাপী এক সভার মঞ্চে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, যুক্তফ্রন্টের কিছু ভালো বিষয় আছে যা প্রধানমন্ত্রী সামনে উপস্থাপন করেছি। বিকল্প ধারার কিছু বিষয় আছে যা আপনারা নিশ্চয় পছন্দ করবেন। যার একটি ছিল, শ্রদ্ধার রাজনীতি আনব। আর কত ঘৃণার রাজনীতি। অনেক তো ঘৃণা হয়ে গেছে। ইতিহাসের যারা নায়ক তাদেরকে শ্রদ্ধা করতে শিখি। আমরা এও বলেছি, যারা স্বাধীনতার বিপক্ষে ছিল ভবিষ্যতে তাদের কোন স্থান দেয়া যাবে না। আজকে জামায়াত ইসলামী নিষিদ্ধ প্রত্যক্ষভাবে, কিন্তু পরোক্ষভাবে তারা বিএনপির নমিনেশন নিয়ে ২৫ থেকে ৪৫টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে বলে মনে হচ্ছে।

বড় দুঃখের কথা, বঙ্গবন্ধুর খুব কাছের একটি মানুষ,  নাম বলতে খারাপ লাগে। এত উচ্চশিক্ষিত লোক। তার নাম ড. কামাল হোসেন, যিনি বিএনপিকে পৃষ্ঠপোষকতা করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবসময় মাহীকে খুব স্নেহ করেন। তার হাতে নৌকা তুলে দিয়েছেন, আমরা আনন্দিত হয়েছি। বঙ্গবন্ধুর নৌকার ইজ্জত রক্ষা করতে কাজ করার কথা জানান তিনি। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সাবেক স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষযয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ডা. বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু, উপ-কমিটির সাবেক সহসম্পাদক গোলাম সারোয়ার কবীর প্রমুখ। সভায় আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 


নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে শমী কায়সারকে
সাংবাদিকদের সঙ্গে অভিনেত্রী এবং ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ই-ক্যাব) প্রেসিডেন্ট
বিস্তারিত
নুসরাত হত্যায় পাহারার দায়িত্বে থাকা
ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলায় মহিউদ্দিন শাকিল
বিস্তারিত
চকরিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের উপজেলা প্রশাসনের
চকরিয়া উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের সুধাশু পাহাড়স্থ হিন্দুপাড়া
বিস্তারিত
প্রতারণার অভিযোগে চক্ষু চিকিৎসককে লাখ
পাবনার চাটমোহরে চক্ষু ক্যাম্প চলাকালে মোহাম্মদ আলী (বিএমডিসি রেজিঃ নং
বিস্তারিত
একযুগ বিনাবিচারে কারাগারে আবু হানিফা!
বরগুনা জেলা কারাগারে ১২ বছর যাবৎ বরগুনার পাথরঘাট উপজেলার উত্তর
বিস্তারিত
রংপুরে সাবেক ৬০ সেনাসদস্যকে কারাগারে
রংপুরের ডিসি অফিসের অফিস সহকারী সামসুলের মাধ্যমে ভুয়া অস্ত্রের লাইসেন্স
বিস্তারিত