বাংলাদেশকে হারিয়ে সিরিজ সমতায় উইন্ডিজ

প্রথম ওয়ানডে জিতে এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। আজ দ্বিতীয় ওয়ানডে জিতলেই তিন ম্যাচের সিরিজ উঠে যেত টাইগারদের ঘরে। কিন্তু শাই হোপের ব্যাটে আশার বেলুন চুপসে গেল মাশরাফিদের। দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সমতায় ফেরালেন এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান। ফলে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে ম্যাচ পরিছত হলো অঘোষিত ফাইনালে।  

স্বাগতিক বাংলাদেশের ছুঁরে দেয়া ২৫৬ রানের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে উইন্ডিজ। নিজের প্রথম স্পেলে প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলেই চন্দ্রপল হেমরাজকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। এরপর প্রতিরোধ গড়েন শাই হোপ এবং ড্যারেন ব্রাভো। তাদের প্রতিরোধ ভাঙেন রুবেল হোসন। ৪৩ বলে এক চার, এক ছক্কায় ২৭ রান করা ব্রাভো সরাসরি বোল্ড করে সাজঘরে ফেরৎ পাঠান রুবেল। 

৭০ রানে ২ উইকেট হারানো ক্যারিবীয়দের ইনিংস নতুন করে গোছাতে চেষ্টা করে শাই হোপ আর মারলন স্যামুয়েলস।

প্রথম ওয়ানডেতে ৭ রানের জন্য হাফসেঞ্চুরি মিস করলেও দ্বিতীয় ম্যাচে ভুল করেননি শাই হোপ। ক্যারিয়ারের ৮ম অর্ধ শতক তুলে নেন এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান। স্যামুয়েলসের হোপের ৬২ রানের জুটির ভেঙে দেন মোস্তাফিজুর রহমান। মুশফিকের হাতে ধরা পড়ে বিদায় নেয়ার আগে ২৭ রান করেন স্যামুয়েলস।

পরের ওভারেই আরও একটি উইকেট পেতে পারত বাংলাদেশ। কিন্তু রুবেল হোসেনের করা ৩০তম ওভারের ৫ম বলটি হেটমায়ারের ব্যাটে লেগে উপরে উঠে গেলেও তালুবন্দি করতে পারেননি ইমরুল কায়েস। উল্টো আহত হয়ে মাঠ ছাড়েন এই ওপেনার। তবে হেটমায়ারকে বেশি দুর এগোতে দেননি মোস্তাফিজুর রহমান। ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠার মুহুর্তেই এই উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান শিকার করেন বাংলাদেশের কাটার মাস্টার। বদলি খেলোয়াড় নাজমুল ইসলামের তালুবন্দি হওয়ার আগে ১০ বলে ১৪ রান করেন তিনি।  

পরের ওভারে বল হাতে আক্রমণে আসেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ক্যারিবীয় দলপতি রোভম্যান পাওয়েলকে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন নড়াইল এক্সপ্রেস। এরপর আবার আঘাতা হানেন মোস্তাফিজ। এবার ফিজের শিকার হন রোস্টন চেজ। তামিমের হাতে ধরার পড়ার আগে ৯ রান করেন এই ক্যারিবীয় পেসার।

তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে উইন্ডিজকে জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছেন শাই হোপ। দলের বিপর্যয়ে একাই লড়াই চালিয়ে যান তিনি। শুধু তাই নয়, ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ক্যারিবীয় এই ওপেনার। শেষ পর্যন্ত ১৪৬ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে তবেই মাঠ ছাড়লেন শাই হোপ। বাংলাদেশ হারল ৪ উইকেটে। সিরিজে সমতা ফেরাল উইন্ডিজ।

এর আগে নিজেদের ‘শততম’ ওয়ানডে খেলতে নামেন মাশরাফি বিন মর্তুজা, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহীম এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। মাইলফলকের ম্যাচে ব্যাট হাতে জ্বলে উঠেন সাকিব, মুশফিক এবং তামিম ইকবাল। তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। তাদের হাফ সেঞ্চুরিতে ভর করে ৭ উইকেটে ২৫৫ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ দল। সাকিব ৬২ বলে সর্বোচ্চ ৬৫, তামিম ৬৩ বলে ৫০ এবং মুশফিক করেন ৮০ বলে ৬২ রান।

উইন্ডিজের পক্ষে ওশানে থমাস সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট শিকার করেন। এছাড়া রোভম্যান পাওয়েল, কেমার রোচ, দেবেন্দ্র বীশু ও কেমো পল একটি করে উইকেট নিয়েছেন।  


আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মুস্তাফিজ
আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর
বিস্তারিত
খুলনাকে হারিয়ে চতুর্থ জয় পেল
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসরের ২২তম
বিস্তারিত
কোয়ার্টার ফাইনালে বার্সেলোনার প্রতিপক্ষ সেভিয়া
কোপা ডেল রে’র কোয়ার্টার ফাইনালের ড্র চূড়ান্ত করা হয়েছে। ড্র
বিস্তারিত
খুলনার বিপক্ষে দুর্দান্ত জয় কুমিল্লার
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ আসরের ২০তম
বিস্তারিত
অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দল থেকে ছিটকে
পিঠের ইনজুরির কারনে শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ থেকে
বিস্তারিত
সাকিবের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে জয়ের ধারায়
অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)
বিস্তারিত