ফেনীতে নতুন কারাগারে বন্দি স্থানান্তর সম্পন্ন

ফেনী পুরাতন কারাগার থেকে নতুন কারাগার আয়তনে ৫ গুণ বড়। ১০১৬ কারারক্ষীর পদ থাকলেও কর্মরত রয়েছেন ৫৩ জন। নিরাপত্তা নিয়ে শংকা থাকলেও শনিবার দুপুরে রানীরহাটে সুপরিসরে নবনির্মিত ফেনী জেলা কারাগারে বন্দি স্থানান্তর করা হয়েছে। এর আগে বিগত বছরের ১ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জেলার বৃহৎ এ প্রকল্পের উদ্বোধন করেছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ১৯৯৬ সালে শহরতলির কাজিরবাগ মৌজায় সাড়ে ৭ একর জায়গায় নতুন জেলা কারাগার নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ৩৯ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৮টি ভবন নির্মিত হয়েছে। আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত এ কারাগারে ২টি ওয়াচ টাওয়ার, সিসি ক্যামেরা, ২.৫০ কেভি এ বিদ্যুৎ সাব-স্টেশন, ১০ কিলোওয়াট সৌরবিদ্যুৎ, ২০ কেভি জেনারেটর ছাড়াও বৃষ্টির পানি সংরক্ষণের ব্যবস্থা, অভ্যর্থনা মঞ্চ, প্যারেড গ্রাউন্ড, আন্ডারগ্রাউন্ড ওয়াটার রিজার্ভার রয়েছে। এ কারাগারে বন্দি ধারণ ক্ষমতা রয়েছে ৩৫০ জন।

কারা সূত্র জানায়, শনিবার ভোর ৫টা থেকে বন্দি স্থানান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে দুপুরের মধ্যে সম্পন্ন হয়। ৮ শতাধিক বন্দিকে ৫টি ভ্যান গাড়িতে করে স্থানান্তর করা হয়। বন্দি স্থানান্তরে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কারারক্ষী ছাড়াও পুলিশের ১০০ সদস্য, র‌্যাব, সাদা পোশাকের পুলিশ ও গোয়েন্দা নজরদারি থাকে।

ওই সূত্র আরো জানায়, যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন। বন্দি স্থানান্তর প্রক্রিয়া তদারকি করেন চট্টগ্রাম বিভাগের ডিআইজি প্রিজন এ.কে.এম ফজলুল হক।

জানতে চাইলে ফেনী কারাগারের সুপার মোহাম্মদ রফিকুল কাদের বলেন, নবনির্মিত নতুন কারাগার স্থানান্তরে বন্দিদের দুর্ভোগ লাগব হবে। তবে কারারক্ষী স্বল্পতায় নতুন কারাগারে নিরাপত্তা শংকার বিষয়ে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

‘পুরাতন কারাগারে বন্দিদের প্রশিক্ষণ’
১৮৭৬ সালে ফেনী মহকুমা হওয়ার পর ফেনী শহরের রাজাঝির দিঘীর দক্ষিণ পূর্বকোণে বাঁশের বেড়া দিয়ে ফেনীতে প্রথম হাজতখানা স্থাপিত হয়। শহরের কেন্দ্রস্থল হওয়ায় চার তলার সুউচ্চ লাল বিল্ডিংটি সবার চিরচেনা। জানালার ফাঁক দিয়ে বন্দিদের চিৎকার-চেঁচামেচিতে ওই সড়কের পথচারীদের নজর পড়ত। আশপাশে ট্রাংক রোড, পৌরসভা ও সরকারি কলেজ থাকলেও সড়কটি জেলরোড হিসেবেই সর্বাধিক পরিচিত।

কারা সূত্র জানায়, কারা অভ্যন্তরে রয়েছে ৪ তলাবিশিষ্ট লাল ভবন, দুটি টিনশেড ভবন ও নারীদের জন্য একতলা টিনশেড ভবন রয়েছে। এসব ভবনে ধারণক্ষমতা রয়েছে ১৭২টি। নতুন কারাগারে বন্দি স্থানান্তর হওয়ায় পুরাতন কারাগারকে ‘কারাগার-২’ হিসেবে ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

সূত্র আরো জানায়, ‘স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী কারাবন্দিদের আত্মকর্মসংস্থানমূলক প্রশিক্ষণ প্রদান করে দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত করার মাধ্যমে কারাগারসমূহকে সংশোধনাগারে রূপান্তর করার লক্ষ্যে নতুন নির্মিত কারাগারকে-১ এবং পুরনো কারাগারকে কারাগার-২ হিসাবে ব্যবহার করার জন্য সরকার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’


ফরিদগঞ্জে চেয়ারম্যান প্রার্থীর শর্টগান ৪৩
চাঁদপুর জেলাধীন ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র
বিস্তারিত
দুর্বৃত্তদের গুলিতে প্রিসাইডিং অফিসারসহ নিহত
রাঙামাটি জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষে ফেরার পথে
বিস্তারিত
চলনবিলে তরমুজ ক্ষেতে ভাইরাস আক্রমণে
ঐতিহাসিক চলনবিল এলাকার সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলাসহ বিভিন্ন স্থানে তরমুজ ক্ষেতে
বিস্তারিত
বাহুবল উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জাতির
জেলার বাহুবল উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু
বিস্তারিত
শায়েস্তাগঞ্জে জাতির পিতার জন্মবার্ষিকী পালন
শায়েস্তাগঞ্জে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী পালন
বিস্তারিত
রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুর মৃত্যু
রংপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় শাওন ইসলাম (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু
বিস্তারিত