এসএসসির সময় সব কোচিং সেন্টার বন্ধ: শিক্ষামন্ত্রী

ফাইল ছবি

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরুর সাত দিন আগ থেকে শেষ পর্যন্ত (২২ জানুয়ারি থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি ) দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নকলমুক্ত ও সুষ্ঠু পরিবেশে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে রোববার (২০ জানুয়ারি) বিকেলে রাজধানীতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এই সংক্রান্ত জাতীয় তদারক ও আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত কমিটির সভা হয়। সভা শেষে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নেয়ার কথাও তুলে ধরেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, আগামী ২ ফেব্রুয়ারি শুরু হতে যাচ্ছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষা। এ পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁস ও নিরাপত্তাজনিত কারণে ২২ জানুয়ারি থেকে ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সব কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবার অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল কাগজে বাঁধিয়ে প্রশ্নপত্র পাঠানো হবে। এছাড়া আগের মতো পরীক্ষার্থীদের ৩০ মিনিট আগে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। যদি বিশেষ কোনো কারণে কারও দেরি হয় সে ক্ষেত্রে দেরির কারণ ও পরীক্ষার্থীর নাম-ঠিকানা লিখে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। পরীক্ষা কেন্দ্রের আশপাশে ১৪৪ ধারা জারি থাকবে। 

তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে গুজব রটনাকারী শনাক্ত হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এবারও পরীক্ষার কেন্দ্রে কেউ মোবাইল নিতে পারবেন না। শুধু কেন্দ্রসচিব সাধারণ মানের একটি মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন।

আগামী ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি হবে তত্ত্বীয় পরীক্ষা। আর ২৬ ফেব্রুয়ারি সংগীত বিষয়ের এবং ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ১২ মার্চের মধ্যে অন্য বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষা হবে।

এবারও বহু নির্বাচনী (এমসিকিউ) অংশের উত্তর আগে দিতে হবে। পরে নেওয়া হবে সৃজনশীল/রচনামূলক অংশের পরীক্ষা।

এ বছর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় মোট ২১ লাখ ৩৭ হাজার ৩৬০ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। সারা দেশে মোট ৩৪৯২টি কেন্দ্রে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা আয়োজন করা হবে।

প্রায় সব ধরনের পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগের মধ্যে গত বছরও এসএসসির তিন দিন আগ থেকে পরীক্ষা শেষ হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল সরকার।

অন্যদের মধ্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর ছাড়াও জাতীয় মনিটরিং ও আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত কমিটির সদস্যরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।


সন্ত্রাসীদের দেশ নেই, সবাইকে সোচ্চার
শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন,
বিস্তারিত
মাহফুজউল্লাহর মেয়ে বললেন ‘বাবা বেঁচে
সিনিয়র সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ এখনো বেঁচে আছেন। তিনি থাইল্যান্ডের একটি
বিস্তারিত
ব্রুনাই পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
তিনদিনের সরকারি সফরে ব্রুনাই পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (২১
বিস্তারিত
দুই বাংলাদেশির খোঁজ মিলছে না
শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ বোমা হামলার পর এক শিশুসহ দুই বাংলাদেশি ‘আনঅ্যাকাউন্টেড
বিস্তারিত
সারাদেশে নিরাপত্তা জোরদার
শ্রীলঙ্কায় বোমা বিস্ফোরণের পরিপ্রেক্ষিতে অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো ধরনের ঘটনা এড়াতে বাড়তি
বিস্তারিত
শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলা: রাষ্ট্রপতি ও
রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রীলঙ্কায় বোমা
বিস্তারিত