‌'কেমিক্যাল গোডাউন সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে'

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গোডাউন সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, ‘পুরান ঢাকার চকবাজার ট্রাজেডির দায় সরকার এড়িয়ে যেতে পারে না। নিমতলীর ঘটনার পর কেমিক্যাল গোডাউন সরানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল।’

সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, কিন্তু ক্লোজ মনিটরিংয়ের অভাব ছিল। তাই আবার এখানে গোডাউন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এসব গোডাউন সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের শুক্রবার সকালে রাজধানীর ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চকবাজার অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধদের দেখতে গেলে এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, গাড়িতে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার বিপজ্জনক ঘটনা ঘটাচ্ছে। সিলিন্ডার ব্যবহার না করাই ভালো।

তিনি বলেন, গাড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার না করার বিকল্প ভাবা হচ্ছে। এ ব্যাপারে ও প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, এ ঘটনার পর সরকার নাকে তেল দিয়ে ঘুমাচ্ছে না। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না ঘটে তার জন্য কাজ করছে সরকার।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিএনপিকে এ ধরনের মর্মান্তিক ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়।
এ সময় আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নিহত ৯ জনের পরিবারের সদস্যদের দলের পক্ষ থেকে এক লাখ করে টাকা প্রদান করেন।

এছাড়াও স্থানীয় সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম আহতদের চিকিৎসার জন্য প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা প্রদান করেন। এই টাকার চেক হাজী সেলিম আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কাছে হস্তান্তর করেন।


জাতীয়তাবাদী সাইবার দলের সভাপতি আটক
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধকে অবমাননা করে পোস্ট ও রাষ্ট্রবিরোধী প্রপাগান্ডা
বিস্তারিত
জঙ্গি হামলার হুমকির বিষয়টি অনুমানভিত্তিক:
জঙ্গি হামলার কোনো হুমকি না থাকলেও সতর্কতামূলকভাবে রাজধানীর গুলশানসহ বিভিন্ন
বিস্তারিত
২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস স্বীকৃতি
২০১৭ সাল থেকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ২৫শে মার্চকে জাতীয় গণহত্যা দিবস হিসেবে
বিস্তারিত
গুলশানে রেড অ্যালার্ট
২৬ শে মার্চ সামনে রেখে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কায় রাজধানীর বিভিন্ন
বিস্তারিত
ট্রাফিক জরিমানা পরিশোধ করা যাবে
ট্রাফিক আইন লঙ্ঘনের দায়ে ‘ট্রাফিক ই-প্রসিকিউশন’র করা জরিমানা এখন থেকে
বিস্তারিত
কূটনৈতিক এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার
কূটনৈতিক এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এর মধ্যে
বিস্তারিত