খুলনা উপকূল অতিক্রম করছে বুলবুল

অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুল কিছুটা দুর্বল হয়ে খুলনা উপকূল অতিক্রম শুরু করেছে। ঝড়ের প্রভাবে উপকূল বৃষ্টি ও ঝোড়ো হাওয়া বিরাজ করছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের বিশেষ বুলেটিনে বলা হয়েছে, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আরো উত্তর পূর্ব দিকে প্রতি ঘণ্টায় ৮ কিলোমিটার বেগে অগ্রসর হয়ে কিছুটা দুর্বল হয়ে প্রবল ঘূর্ণিঝড় আকারে রাত ৯টা নাগাদ পশ্চিমবঙ্গ-খুলনা উপকূল (সুন্দরবনের নিকট দিয়ে) অতিক্রম শুরু করেছে।

ঘূর্ণিঝড়টি বর্তমানে উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের দক্ষিণপশ্চিম এলাকায় (২১.৪ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৮.৩ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ) অবস্থান করছে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় বুলবুল আরো উত্তর পূর্ব দিকে অগ্রসর ও ক্রমশ দুর্বল হয়ে শনিবার দিন গত মধ্যরাত নাগাদ পশ্চিমবঙ্গ-খুলনা (সুন্দরবনের নিকট দিয়ে) উপকূল অতিক্রম সম্পন্ন করতে পারে। এটি কেন্দ্রের ৬৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়ার আকারে ১২০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটে সাগর খুবই বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় জেলা ভোলা, বরগুনা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে।

এদিকে চট্টগ্রাম সমুদ্র বন্দরকে ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহ ৯ নম্বর মহাবিপদ সংকেতের আওতায় থাকবে। কক্সবাজার উপকূলকে ৪ নম্বর স্থানীয় হুঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

বুলবুল অতিক্রমকালে চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, পিরোজপুর ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা জেলা সমূহ এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ সহ ঘণ্টায় ৮০-১০০ কিলোমিটার বেগে দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

ঘূর্ণিঝড় ও মুন ফেজ এর প্রভাবে উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, বরগুনা, ভোলা, পটুয়াখালী, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং তাদের অদূরবর্তী দ্বীপ ও চরসমূহের নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৫-৭ ফুট অধিক উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হতে পারে।

উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।


২০৪১ সালের বাংলাদেশ গড়ার কারিগর
আজকের মেধাবী শিক্ষার্থীরা ২০৪১ সালের বাংলাদেশ গড়ার কারিগর হবে বলে
বিস্তারিত
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষককে অব্যাহতি
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচজন শিক্ষককে অব্যাহতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম
বিস্তারিত
আজ প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন ১৭২
বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭২ জন শিক্ষার্থী পাচ্ছেন ‘প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক’ পুরস্কার। প্রধানমন্ত্রীর
বিস্তারিত
ঢাকা আইনজীবী সমিতির ভোটগ্রহণ চলছে
বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ঢাকা আইনজীবী সমিতির (ঢাকা
বিস্তারিত
দেশের সবচেয়ে বড় বিমানবন্দর হবে
জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভায় ‘রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবে রূপায়ন: বাংলাদেশের
বিস্তারিত
করোনা ভাইরাস নিয়ে সুখবর দিলেন
আমাদের দেশে এ পর্যন্ত ৩ লাখের মতো লোক পরীক্ষা করেছি।
বিস্তারিত