হাসপাতালে স্বজনদের স্বাক্ষাৎ

‘শুধু বমি করছে, গায়ে জ্বর, ব্যথায় কোকাচ্ছে খালেদা জিয়া’

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার যথাযথ চিকিৎসা হচ্ছে না- এমন অভিযোগ করে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্য কোনো হাসপাতালে নেয়ার ইচ্ছা জানিয়েছেন তার বোন সেলিমা ইসলাম। অন্যত্র চিকিৎসার সুযোগ করে দেয়ার জন্য তিনি পারিবারিকভাবে খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে বিশেষ আবেদন করার সিদ্ধান্ত নেবেন।

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন।

সেলিমা ইসলাম বলেন, তার অবস্থা তো খুবই খারাপ। সে শুধু বমি করছে। গায়ে জ্বর আছে। ব্যথায় কোকাচ্ছে, বাঁ হাতটা সম্পূর্ণ বেঁকে গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য অন্য কোথাও নিতে হবে। এ হাসপাতালে এটা সম্ভব না।

হাসপাতালের ডাক্তাররা তাকে কেমন দেখছেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে সেলিমা ইসলাম বলেন, তারা যে চিকিৎসা দিচ্ছে এতে কোনো কাজ করছে না।

পরিবারের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে কোনো আবেদন করা হবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এখনো কোনো আবেদন করিনি। উনার যে অবস্থা উনাকে মুক্তি দিয়ে উন্নত চিকিৎসার বন্দোবস্ত করতে হবে। শরীর তো খুবই খারাপ। ব্যথায় কোকাচ্ছেন। তার ডায়াবেটিস আজকেও ১৫ তে। এভাবে কতদিন চলবে? এ হাসপাতালে তো ১ বছরের কাছাকাছি সময় রয়েছেন, তার শরীরে কোনো উন্নতি হচ্ছে না বরং দিন দিন অবনতি হচ্ছে। এজন্য আমরা চাই উনাকে উন্নত হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে।

খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে সরকার আইনের কথা বলছেন, এই ক্ষেত্রে পরিবারের পক্ষ থেকে বিশেষ কোনো আবেদন করবে কি না জানতে চাইলে সেলিমা ইসলাম বলেন, আমরা ভাবছি, আমরা আবেদন করব। তবে এটা এখনো ঠিক করিনি। কারণ তার শরীরে যে অবস্থা, এই অবস্থায় বেশিদিন থাকলে তাকে জীবিত অবস্থায় বাসায় নিয়ে যেতে পারব না।

নির্বাচনের বিষয়ে কোনো বার্তা দিয়েছেন কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে খালেদা জিয়ার বোন বলেন, সে তো কথাই বলতে পারছে না। তবে দেশবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

এর আগে বিকাল ৩টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে প্রবেশ করেন পরিবারের সদস্যরা। সঙ্গে নিয়ে যান বাসায় রান্না করা খাবার ও কিছু ফলমূল। বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে তারা বের হয়ে আসেন।

পরিবারের বরাত দিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার জানান, বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তার সেজো বোন সেলিমা ইসলাম, ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার, তার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা ও তাদের ছেলে অভিক ইস্কান্দার ও সাইদ ইস্কান্দারের স্ত্রী নাসরিন ইস্কান্দার। আরাফাত রহমান কোকোর শাশুড়ী ফাতেমা রেজা হাসপাতলে এলেও সাক্ষাৎপ্রার্থীর তালিকায় তার নাম না থাকায় তাকে প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি।


বিএনপির মিছিলে পুলিশের হামলা, রিজভীসহ
কারাবন্দী খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি এবং দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক
বিস্তারিত
খালেদা মেট্রিকে উর্দুতে পাস, বাংলায়
বাংলা ভাষার প্রতি খালেদা জিয়ার ভালোবাসা রয়েছে কি-না তা নিয়ে
বিস্তারিত
গণতান্ত্রিক চেতনাকে দখলদার সরকার হরণ
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র নেই।
বিস্তারিত
খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত করতে
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত করতে তার পরিবারের
বিস্তারিত
মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে বিএনপিকে আমন্ত্রণ জানানো
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দল বিএনপিকে
বিস্তারিত
‘গণআন্দোলন শুরু করতে আর দেরি
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দুর্বার গণআন্দোলনের
বিস্তারিত