logo
প্রকাশ: ১২:৩৮:০৯ AM, সোমবার, অক্টোবর ২২, ২০১৮
ডিজিটালাইজেশনে আর্থিক প্রতিষ্ঠানে অভাবনীয় রূপান্তর হয়েছে
প্রযুক্তি প্রতিবেদক

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটালাইজেশনের ফলে বাংলাদেশ একটি ক্যাশল্যাস সোসাইটির দিকে ধাবিত হচ্ছে। ডিজিটালাইজেশনের ফলে ২০০৯ সালের পর থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোয় অভাবনীয় রূপান্তর হয়েছে। ডিজিটাল ব্যাংকিং দেশের সাধারণ মানুষের অতি পরিচিত ও জনপ্রিয় একটি সেবায় রূপান্তরিত হয়েছে। মন্ত্রী শনিবার ঢাকায় ডুমনিতে ডাচ্্-বাংলা ব্যাংকের টায়ার ফোর ডেটা সেন্টারের উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন। মোস্তাফা জব্বার বলেন, দেশে ডিজিটাল সেবা সম্প্রসারণের ফলে ডিজিটাল অপরাধও বাড়ছে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল নিরাপত্তা অধিকতর নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে তিনি বলেন, বাইরের প্রযুক্তি বা সফটওয়্যার ব্যবহার এক সময় প্রয়োজন ছিল কিন্তু প্রযুক্তি ব্যবহারের জন্য নিজেদের মানুষকে গড়ে তুলছি কিনা সে জায়গাটায় এখন সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। ব্যাংকিং খাতের নিরাপত্তার সঙ্গে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা জড়িত। কাজেই নিরাপত্তা বিধানে নিজেদের সচেষ্ট হতে হবে। আইসিটি খাতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচি উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ব্যাংক বা যে কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দক্ষ জনবল তৈরিতে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা প্রদানে প্রস্তুত। মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল রূপান্তর বেগবান করতে এবং সাইবার নিরাপত্তা বিধানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত আন্তরিক। তিনি বলেন, তারই নেতৃত্বে ডিজিটাল দুনিয়ায় বাংলাদেশ নেতৃত্বকারী দেশ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসএম মনিরুজ্জামান, ডাচ্্-বাংলা ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান সাহবুদ্দিন আহমেদসহ ব্যাংকের পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। গ্রাহকদের নিরবচ্ছিন্ন নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ডাচ্্-বাংলা ব্যাংক প্রায় ৩০০ কোটি টাকা ব্যয়ে টায়ার ফোর ডেটা সেন্টার তৈরি করে। মন্ত্রী, ডেটা সেন্টারের বিভিন্ন স্থাপনা পরিদর্শন করেন।

সম্পাদক ও প্রকাশক : কাজী রফিকুল আলম । সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক আলোকিত মিডিয়া লিমিটেডের পক্ষে ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫ থেকে প্রকাশিত এবং প্রাইম আর্ট প্রেস ৭০ নয়াপল্টন ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত। বার্তা, সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক বিভাগ : ১৫১/৭, গ্রীন রোড (৪র্থ-৬ষ্ঠ তলা), ঢাকা-১২০৫। ফোন : ৯১১০৫৭২, ৯১১০৭০১, ৯১১০৮৫৩, ৯১২৩৭০৩, মোবাইল : ০১৭৭৮৯৪৫৯৪৩, ফ্যাক্স : ৯১২১৭৩০, E-mail : [email protected], [email protected], [email protected]