ঢাকা ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

পাক রওজা শরিফের খাদেম আনছার উদ্দীন আহমদ

পঞ্চম বেছাল শরিফ অনুষ্ঠিত

পঞ্চম বেছাল শরিফ অনুষ্ঠিত

সুলতানুল আউলিয়া কুতুবুল আকতাব গওছে জামান আরেফ বিল্লাহ শাহ্ সুফি আলাহাজ হজরত খান বাহাদুর আহ্ছানউল্লা (র.) এর প্রিয় সহচর ও প্রয়াত খাদেম আলহাজ মৌ. খাদেম আনছার উদ্দীন আহমদের পঞ্চম বেছাল শরিফ উপলক্ষ্যে মৌলুদ শরিফের অনুষ্ঠান গতকাল রোববার বাদ ফজর থেকে সকাল ৮.৪৫ মিনিট পর্যন্ত নলতা শরিফ কেন্দ্রীয় শাহী জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়েছে। নলতা কেন্দ্রীয় আহ্ছানিয়া মিশনের সভাপতি সাবেক মন্ত্রী আলহাজ অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রহুল হকের (এমপি) সভাপতিত্বে বাদ ফজর পাক রওজা শরিফ, পীর আম্মা ও খাদেম সাহেবের মাজারে চাদর পেশ ও জিয়ারতের মধ্য দিয়ে সাড়ে ৫টায় মিলাদ শরিফ শুরু হয়। কেন্দ্রীয় মিশনের সহ-সভাপতি আলহাজ মো. সাইদুর রহমানের পরিচালনায় কোরআন তেলাওয়াত করেন মৌ. আব্দুল হাকিম, মিলাদ শরিফ পরিচালনা করেন হাফেজ মো. হাবিবুর রহমান, হামদণ্ডনাত ও মুর্শিদী পরিবেশন করেন আলহাজ নেছার আহম্মেদ ঢাকা, মো. আলতাফ হোসেন বাচ্চু (মহানগর মিশন, ঢাকা), রবিউল ইসলাম ও আনিছুর রহমান (নলতা শরিফ)।

ভক্তের পত্র থেকে পাঠ করেন আলহাজ রফিকুল ইসলাম বাচ্চু (ন কে আ মি), আত্মত্যাগের মহিমায় মৌ. আনছার উদ্দীন আহমদ স্বরনে বক্তব্য রাখেন আলহাজ আবুল ফজল (কার্যনির্বাহী সদস্য, ন কে আ মি)। আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন আলহাজ মো. আলমগীর খান, ঢাকা (কার্যনির্বাহী সদস্য, ন কে আ মি), মো. মনিরুল ইসলাম পরিচালক খান বাহাদুর আহ্ছান উল্লা ইনস্টিটিউট, আলহাজ মো. মাহবুবে খোদা (হবিগঞ্জ), আলহাজ এএফএম এনামুল হক (মহা পরিচালক খান বাহাদুর আহ্ছান উল্লা ইনস্টিটিউট), আলহাজ মো. শামছুল হুদা ও পাক রওজা শরিফের খাদেম আলহাজ মো. আব্দুর রাজ্জাক। সভাপতির সমাপনী বক্তব্য রাখেন আলহাজ অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রহুল হক (এমপি)। বক্তারা বলেন, খাদেম মৌ. আনছার উদ্দীন আহমদ ছিলেন একজন ত্যাগি মহাপুরুষ, তিনি পীর কেবলা (রহ.)-এর প্রীয় সহচর ছিলেন। ব্যক্তি জীবনে তিনি সংসার ত্যাগ করে পীর কেবলা (রহ.) এর তথা আহ্ছানিয়া মিশনের খেদমত করে গেছেন। তিনি পীর কেবলা (র.) এর রঙে-রঙিন ছিলেন। অপরূপ সৌন্দর্য্যমণ্ডিত পাক রওজা শরিফ নির্মাণে খাদেম সাহেবের আবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি নলতা শরিফ চক্ষু হাসপাতাল নির্মাণ করেছেন, নলতা রেসিডেন্সিয়াল কলেজ নির্মাণে তার অনেক অবদান রয়েছে। তিনি নলতা শরিফে কয়েকটি গেস্ট হাউজ নির্মাণ করে গেছেন। পীর কেবলা (র.) এর অগণিত ভক্তকূলের মাঝে তিনি অনুকরণীয় ও অনুসরণীয়। অনুষ্ঠানে সিলেট, হবিগঞ্জ, ঢাকা, চট্টগ্রাম, গোপালগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার নর-নারী ভক্ত আশেকানবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত