ঢাকা ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে শ্রমিকের মৃত্যু

চাঁদপুরের কচুয়ায় পৌর এলাকায় ৪ তলা নির্মাণধীন ভবনে কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বিল্ডিং থেকে নিচে পড়ে গিয়ে ইসমাইল হোসেন সুজন নামে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছেন আরো দুই শ্রমিক।

গত সোমবার বিকালে উপজেলা সদরের চাঁদপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের সম্মুখে ক্যামিকেল ব্যবসায়ী মাসুদ আলমের বিল্ডিংয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

কচুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ইসমাইল হোসেন উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের পশ্চিমপাড়ার গাজী বাড়ির ইমান হোসেনের ছেলে। বিল্ডিংয়ের ঠিকাদার কড়ইয়া গ্রামের শেহের আলী জানান, বিল্ডিংয়ের ৪ তলার ছাদে রড উঠানোর সময় উপরে থাকা উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বৈদ্যুতিক লাইনের তারের সঙ্গে রড লেগে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে হন। এরপর ছাদ থেকে মাটিতে পড়ে ঘটনাস্থলে ইসমাইল হোসেন সুজন মারা যান।

এ সময় তার সঙ্গে থাকা একই গ্রামের নির্মাণ শ্রমিক শাকিল ও সেঙ্গয়া গ্রামের আব্দুর রশিদ গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা জানান, বিকালে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের সম্মুখে চতুর্থ তলা ভবনের কাজ করার সময় বৈদ্যুাতিক তারের সঙ্গে রড লেগে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইসমাইল হোসেন ছিটকে নিচে পড়েন এবং তার সঙ্গে থাকা আরো দুই শ্রমিক গুরুতর আহত হন। তাদের দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইসমাইল হোসেন সুজনকে মৃত ঘোষণা করে। উন্নত চিকিৎসার জন্য অজ্ঞান অবস্থায় থাকা বাকি দুই শ্রমিককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

স্থানীয়রা আরো জানান, বিল্ডিংয়ের মালিকের গাফিলতি, অপরিকল্পিতভাবে ভবন নির্মাণ ও ওপরে নেট না দিয়ে কাজ করার কারণে এই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। কোনোভাবে এই শ্রমিকের মৃত্যুর দায় ভবনের মালিক মাসুদ আলম এড়াতে পারেন না। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। ঘটনার পর এই বিষয়ে বক্তব্যের জন্য বাড়ির মারিক মাসুদ আলমকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। ওসি মিজানুর রহমান জানান, ইসমাইল হোসেন নামের এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যুর খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হবে।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত