ঢাকা ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

নারীর তুলনায় পুরুষ বাহক বেশি

দেশে থ্যালাসেমিয়া বাহকের হার ১১.৪ শতাংশ মানুষ

দেশে থ্যালাসেমিয়া বাহকের হার ১১.৪ শতাংশ মানুষ

দেশে থ্যালাসেমিয়া বাহকের হার ১১.৪ শতাংশ মানুষ। এর মধ্যে নারীর তুলনায় পুরুষ বাহকের সংখ্যা বেশি বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস)। গতকাল বিবিএসের ন্যাশনাল থ্যালাসেমিয়া সার্ভে ২০২৪-এর প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ১৪ থেকে ৩৫ বছর বয়সি বিবাহিত ও অবিবাহিত জনগোষ্ঠীর মধ্যে এই জরিপ চালানো হয়। মোট ৮ হাজার ৬৮০ জনের ওপর জরিপ চালানো হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার। বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিবিএসের মহাপরিচালক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তা লিজেন শাহ নঈম। বক্তব্য দেন, বিবিএসের উপমহাপরিচালক ওবায়দুল ইসলাম। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশে জাতীয়ভাবে থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত বাহকের হার ১১.৪ শতাংশ। এর মধ্যে নারী ১১.২ শতাংশ এবং পুরুষের হার ১১.৯ শতাংশ। থ্যালাসেমিয়া বাহকের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি রংপুরে ২৭.৭ শতাংশ। দ্বিতীয় স্থানে থাকা রাজশাহীতে ১১.৩ শতাংশ। তৃতীয় স্থানে থাকা চট্টগ্রামে ১১.২ শতাংশ। এছাড়া, ময়মনসিংহে ৯.৮ শতাংশ, খুলনায় ৮.৬ শতাংশ, ঢাকায় ৮.৬ শতাংশ, বরিশালে ৭.৩ শতাংশ ও সিলেটে সবচেয়ে কম ৪.৮ শতাংশ। প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, দেশে হ্যাপাটাইটিস ‘বি’ ভাইরাসে আক্রান্তের হার ১.২ শতাংশ এবং হ্যাপাটাইটিস ‘সি’ ভাইরাসে আক্রান্তের হার ০.৫ শতাংশ। স্বাস্থ্য বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, আমাদের চেষ্টার ত্রুটি নেই। আমরা সরকারি-বেসরকারিভাবে জেলা পর্যায়ে সব জায়গাতেই সচেতন থাকার চেষ্টা করি। এছাড়া, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এ রোগের জন্য সহায়তা দেওয়া হয়। পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব ড. শাহনাজ আরেফিন বলেন, থ্যালাসেমিয়া রোগ নির্মূল করা সম্ভব। বাহক টু বাহক বিবাহ বন্ধ করা গেলে এ রোগ আস্তে আস্তে নির্মূল হবে। এজন্য একটা নীতিমালা থাকা দরকার। বিবিএসের রিপোর্টের মাধ্যমে এ রোগটি নির্মূলে সরকার যথাযথ পদক্ষেপ নিতে পারবে। পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান বলেন, বিয়ের আগে রক্ত পরীক্ষা করে বিয়ে করার প্রচলন চালু করতে পারলে এ রোগে আক্রান্তের হার কমে যাবে। বিবিএস এত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে একটি সার্ভে করেছে। পরিসংখ্যান ব্যুরোর থ্যালাসেমিয়ার এ সার্ভের মাধ্যমে রোগটি প্রতিহত করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পারবে।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত