ঢাকা ২৩ জুলাই ২০২৪, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

বর্ষাকালে চুলে তেল মাখা ভালো?

বর্ষাকালে চুলে তেল মাখা ভালো?

অনেকেই বলেন চুলের খাবার তেল। তাই চুলের যত্নে তেল মাখার বিকল্প নেই। শীতকালে চুল রুক্ষ হয়ে যায়। তখন কয়েকদিন পর পর তুলে চেল মাখা হয়। কিন্তু বর্ষাকালে চুলে তেল দিলে কি উপকার হয়? বর্ষাকাল মানেই চুলের নানা সমস্যা। একটু এদিক সেদিন হলেই চুল পড়া বাড়ে। চুলের গোড়া দুর্বল হয়ে যায়। এমনকি স্ক্যাল্পে সংক্রমণও দেখা দেয়। তাই তো এই সময়ে চুলের নানা সমস্যা সামাল দিতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খান প্রত্যেকেই। কেউ চুল ভালো রাখতে হেয়ার প্যাক লাগান। কারও আবার মনে হয় শ্যাম্পু করলেই উপকার মিলবে। আবার অনেকেই প্রাকৃতিক তেলের উপরে ভরসা রাখেন। কিন্তু বর্ষায় চুল ভালো রাখার জন্য কি আদৌ তেল মালিশ করা প্রয়োজন? নাকি তেল মাখলে আরো বেশি ক্ষতি হতে পারে? বর্ষায় তেল মাখবেন কি না? জেনে নিন বিস্তারিত।

প্রাকৃতিক তেলের উপকারিতা কী কী : চুলের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য প্রাকৃতিক তেলের ভূমিকা অপরিসীম। এটি আপনার চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। এছাড়াও আপনার চুলের ওপরে তৈরি করে একটি সুরক্ষাস্তর। আর নিয়মিত তেল মাখলে চুলের শাইনও হয় দেখার মতো। কিন্তু চুলের বৃদ্ধিতে বা চুল পড়া কমাতে প্রাকৃতিক তেলের সরাসরি কোনো ভূমিকা নেই বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। এছাড়া নারকেল তেল, আমন্ড অয়েলসহ অন্যান্য প্রাকৃতিক তেল আপনার স্ক্যাল্পের সংক্রমণ কমাতে পারে না। বর্ষায় হানা দেয় নানা সংক্রমণ : বর্ষাকালে বাতাসে আর্দ্রতার মাত্রা বেশি থাকে। তাই স্ক্যাল্পও ভিজে ভিজে থাকে সারা দিন। সংক্রমণের আশঙ্কা থাকে বেশি। এই সময়ে সেবোরিক ডার্মাটাইটিসেও আক্রান্ত হন অনেকে। ফলে স্ক্যাল্পে জ্বালা-চুলকানি হতে থাকে। এমনকি সাদা চামড়াও ওঠে। এসব সমস্যাকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে স্ক্যাল্প পরিষ্কার রাখা আবশ্যক। আর তার জন্য নিয়মিত শ্যাম্পু করা প্রয়োজন। তেল মাখলে কি উপকার মিলবে? বর্ষায় স্ক্যাল্প আর্দ্র থাকার কারণে সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়ে। ধুলা-ময়লাও জমে স্ক্যাল্পে। আর ফলিকলগুলোতে তেলও জমে থাকে। এছাড়া অতিরিক্ত আর্দ্রতা আপনার হেয়ার ফলিকলগুলোকেও দুর্বল করে দেয়। তাই সহজেই চুল পড়ে যায়। আর আপনি যদি এর মধ্যে তেল মাখেন, তাহলে সমস্যা আরো বাড়ে কমে না। এমনকি চুলের বেহাল দশা হয়।

ভুল করলেই বিপদ : তেল মাখলে আপনার স্ক্যাল্প আরও চিটচিট করবে। আর এই বর্ষায় যদি এর মধ্যেই আপনার স্ক্যাল্পে কোনও সংক্রমণ হয়ে থাকে, তাহলে এই সমস্যা আরো জাঁকিয়ে বসবে। এমনকি স্ক্যাল্পে জ্বালাভাব ও চুলকানিও মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে। তাই আপনার স্ক্যাল্পের ধরন যদি তৈলাক্ত হয়, তাহলে এই সময়ে তেল না মাখাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত