ঢাকা ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

বীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

৬ মাসে ২৯১ নরমাল ডেলিভারি সম্পন্ন

৬ মাসে ২৯১ নরমাল ডেলিভারি সম্পন্ন

দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৬ মাসে ২৯১ নরমাল ডেলিভারি সম্পন্ন করা হয়েছে। সিজার ছাড়াই স্বাভাবিক সন্তান প্রসব দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য মপ্লেক্সে প্রতিদিনই প্রসূতিরা স্বাভাবিকভাবে সন্তান প্রসব করছেন। তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে-৬১ জন, ফেব্রয়ারি মাসে-৫১, মার্চ মাসে-৪৬, এপ্রিল মাসে-৩৯, মে মাসে-৪৩ ও জুন মাসে-৫১ জনসহ ৬ মাসে ২৯১ জনের নরমাল ডেলিভারি করানো হয়েছে। জানা যায়, শিশুর জন্মের সঙ্গে সঙ্গে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে একটি সনদ দেওয়া হচ্ছে। যার ফলে সহজেই জন্ম নিবন্ধনসহ বিভিন্ন কাজ করতে পারবেন তারা। সবার সহযোগিতা পেলে স্বাভাবিক সন্তান প্রসব সংখ্যা আরো কয়েকগুণ বৃদ্ধি পাবে বলে কর্মরত চিকিৎসকরা জানান। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক, নার্স ও মিডওয়াইফ নার্সদের আন্তরিকতা ও দক্ষতার কারণেই এটা সম্ভব হচ্ছে বলে দাবি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। গর্ভবতী মায়েদের প্রসব পূর্ববর্তী ও পরবর্তী চিকিৎসা ও পরামর্শ প্রদান করায় নিয়মিত নরমাল ডেলিভারির সংখ্যা বাড়ছে একই সঙ্গে গর্ভবতী মায়েদের সরকারি স্বাস্থ্য সেবার প্রতি আস্থা বাড়ছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নরমাল ডেলিভারি হওয়া মায়েরা জানান, শুরুতে তাদের নরমাল ডেলিভারিতে ভয় লাগলেও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মাঠকর্মী ও চিকিৎসকদের আশ্বাসে হাসপাতালে এসে নিরাপদে স্বাভাবিক প্রসব হয়েছে। এতে তাদের একদিকে যেমন খরচ বেঁচেছে অন্যদিকে প্রসবকারী মা ও নবজাতক সুস্থ আছেন। বীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ মহসীন জানান, আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় এসে মাতৃ মৃত্যুর হার কমাতে এবং নরমাল ডেলিভারি নিরাপদ করতে এই হাসপাতালে দক্ষ মিডওয়াইফ আছে। যার ফলে নরমাল ডেলিভারির সংখ্যা বাড়ছে এবং দিন দিন নরমাল ডেলিভারিতে প্রসূতিদের আগ্রহ বাড়ছে। কারণ হাসপাতালে নিরাপদে ডেলিভারি করানো হলে মৃত্যুর ঝুঁকি থাকে না, পাশাপাশি কোনো প্রকার অর্থও ব্যয় হয় না।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত