ঢাকা ২৪ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

শেয়ার বাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা

শেয়ার বাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা

পতন শেষে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় ফিরেছে দেশের শেয়ারবাজার। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস গতকাল রোববার দেশের শেয়ারবাজারে বড় উত্থান হয়েছে। অধিকাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার পাশাপাশি সবক’টি মূল্য সূচকের বড় উত্থান হয়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের গতি। এর মাধ্যমে ঈদের পর লেনদেন হওয়া ১২ কার্যদিবসের মধ্যে ১০ কার্যদিবসেই শেয়ারবাজার ঊর্ধ্বমুখী থাকল।

প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান মূল্য সূচক বেড়েছে ৬১ পয়েন্ট। আর লেনদেন বেড়ে ৯০০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। এর মাধ্যমে গত ১৩ মের পর ডিএসইতে ৯০০ কোটি টাকার বেশি লেনদেনের দেখা মিললো। এমন লেনদেন বাড়ার দিনে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে তিনশ’র অধিক প্রতিষ্ঠান।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। ফলে এ বাজারটিতেও মূল্য সূচকের বড় উত্থান হয়ছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ।

এদিন শেয়ারবাজারে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার মাধ্যমে। ফলে লেনদেনের শুরুতেই সূচকের ঊর্ধ্বমুখিতার দেখা মিলেছে। কিন্তু প্রথম ১৫ মিনিটের লেনদেনের পর থেকেই দাম বাড়ার তালিকা থেকে একের পর এক প্রতিষ্ঠান দাম কমার তালিকায় চলে আসে। এতে এক পর্যায়ে সবকটি মূল্য সূচক ঋণাত্মক হয়ে পড়ে।

অবশ্য সূচকের এই ঋণাত্মক প্রবণতা বেশি সময় স্থায়ী হয়নি। বরং প্রথম আধাঘণ্টার লেনদেন পর থেকেই একের পর এক প্রতিষ্ঠান দাম বাড়ার তালিকায় চলে আসে। লেনদেনের শেষ পর্যন্ত সিংহভাগ প্রতিষ্ঠানের দাম বাড়ার প্রবণতা অব্যাহত থাকে। ফলে সবকটি সূচকের বড় উত্থান দিয়ে দিনের লেনদেন শেষ হয়।

দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইতে দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে ৩০৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। বিপরীতে দাম কমেছে ৬৯টি প্রতিষ্ঠানের। আর ২৪টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত