ঢাকা ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

চূড়ান্ত সূচি প্রকাশ

বাংলাদেশ-পাকিস্তান টেস্ট সিরিজ

বাংলাদেশ-পাকিস্তান টেস্ট সিরিজ

সদ্য শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর চলতি মাসেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ খেলার কথা ছিল টাইগারদের। কিন্তু সিরিজটি স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ফলে দেড় মাসেরও বেশি সময় বিশ্রাম পাচ্ছেন ক্রিকেটাররা। এরপরই পাকিস্তান সফরে যাবে লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে সিরিজটির সূচি প্রকাশ করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। আগস্টের শেষ দিকে মাঠে গড়াবে দুই টেস্টের সিরিজ। গতকাল শুক্রবার দুই টেস্টের সূচি ঘোষণা করেছে পিসিবি। বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের মধ্যকার সিরিজের প্রথম টেস্টের ভেন্যু নির্ধারণ করা হয়েছে রাওয়ালপিন্ডি ক্রিকেট স্টেডিয়াম। ২১ আগস্ট থেকে শুরু হবে ম্যাচটি। এরপর বাংলাদেশ দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে যাবে করাচিতে। করাচি জাতীয় স্টেডিয়ামে ৩০ আগস্ট থেকে সিরিজের সবশেষ ম্যাচের লড়াইয়ে নামবে নাজমুল হাসান শান্তর দল।

যদিও নিজেদের মাঠে অগাস্ট মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলে না পাকিস্তান। কারণ, এই সময়টায় প্রচণ্ড গরম থাকে, তাপমাত্রাও থাকেও অনেক বেশি। অনেক সময় আবার বৃষ্টিও প্রচুর। তবে এই মৌসুমে পাকিস্তান ক্রিকেটের ব্যস্ততা অনেক, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও আয়োজন করবে তারা। অগাস্ট থেকেই তাই শুরু হচ্ছে তাদের যাত্রা। নিজেদের সুদীর্ঘ টেস্ট ইতিহাসে দেশের মাঠে অগাস্ট মাসে তারা আগে স্রেফ দুটি টেস্ট খেলেছে। দুটিই বাংলাদেশের বিপক্ষে ২০০৩ সালে। পাকিস্তানের মাটিতে সর্বশেষ দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে ২০২০ সালে গিয়েছিল বাংলাদেশ।

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারার পর একমাত্র টেস্টেও হেরেছিলেন টাইগাররা। টেস্ট ক্রিকেটে এখনো পাকিস্তানের বিপক্ষে কোনো জয় পায়নি বাংলাদেশ। ১৩ টেস্টে হেরেছে ১২ ম্যাচ, ড্র করতে পেরেছে একটি ম্যাচ। টাইগাররা টেস্ট ক্রিকেটে ব্যস্ত সূচি পার করবে চলতি বছরের বাকি সময়ে। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের পর ভারতের মাটিতে আরও দুটি টেস্ট খেলবে তারা। সাদা পোশাকের লড়াইয়ের সঙ্গে ভারতীয়দের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টিও খেলার কথা রয়েছে সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে। এরপর দেশে ফিরে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে লাল বলের দুটি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ডিসেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে যাবেন শান্তরা। আগস্টে বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজটি ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর দুই দেশেরই প্রথম। বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ খেলার পর ঘরের মাঠে পাকিস্তান তিনটি টেস্ট খেলবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। অক্টোবর মাস জুড়ে ইংলিশদের বিপক্ষে লড়াই শেষে ২০২৪-২৫ মৌসুমে ঘরের মাঠে সাদা পোশাকে তাদের পরবর্তী সিরিজ হবে জানুয়ারিতে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজ খেলার পর ফেব্রুয়ারিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের আয়োজন করবে পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিয়ে আয়োজিত সিরিজটি হবে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পূর্বে। আয়োজক পিসিবি জানিয়েছে, ২০২৫ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির প্রস্তাবিত তারিখ ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ৯ মার্চ। পাকিস্তানের মূল ভেন্যুগুলোর একটি লাহোরে কোনো সিরিজের কোনো ম্যাচ রাখা হয়নি। মূলত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য সংস্কার কাজ চলছে সেখানে।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত