ঢাকা ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ | বেটা ভার্সন

মেসির চোখে মার্টিনেজই বিশ্বসেরা

মেসির চোখে মার্টিনেজই বিশ্বসেরা

আর্জেন্টিনার বারপোস্টের অতন্ত্র প্রহরি এমিলিয়ানো মার্টিনেজ। বিশেষ করে টাইব্রেকারে তার বীরত্বে অবিভূত গোটা ফুটবল বিশ্ব। তার বীরত্বে কাতার বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে দীর্ঘ ৩৬ বছরের শিরোপা খরা কাটিয়েছে আর্জেন্টাইনরা। আলবিসেলেস্তেদের সেই শিরোপা জয়ের পেছনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন মার্টিনেজ। চলমান কোপা আমেরিকায় কুয়েডরের বিপক্ষে আর্জেন্টিনাকে বাঁচিয়েছেন তিনি। টাইব্রেকারে দুর্দান্ত দুটি সেভ করে দলকে সেমিফাইনালে তুলেছেন। অ্যাস্টন ভিলার এই গোলরক্ষকের পারফরম্যান্সে বরাবরই মুগ্ধ অধিনায়ক লিওনেল মেসি। এমিকেই বিশ্বের সেরা গোলরক্ষক বললেন ইন্টার মায়ামি তারকা। হিউস্টনের এনআরজি স্টেডিয়ামে গত শুক্রবার সকালে টাইব্রেকারে গড়ানো প্রথম কোয়ার্টার-ফাইনালে ইকুয়েডরকে ৪-২ ব্যবধানে হারিয়ে সেমি-ফাইনালের টিকিট কাটে আর্জেন্টিনা। টাইব্রেকারে মেসির নেওয়া পানেনকা ক্রসবারে লেগে ফিরে আসলেও তার প্রভাব পড়তে দেননি এমিলিয়ানো। আনহেল মিনার প্রথম শট ঠেকানোর পর অ্যালান মিন্দার পরের শটটিও ঠেকিয়ে এগিয়ে দেন এই গোলরক্ষক। সেটাই ফলাফল নির্ধারণ করে দেয় ম্যাচের। ম্যাচের পর, সতীর্থদের ধন্যবাদ জানিয়ে সামাজিকমাধ্যমে এমিলিয়ানোর প্রশংসা করে মেসি লিখেছেন, ‘আরো এক ধাপ... কঠিন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে আমরা অনেক ভুগেছি। সবার পরিশ্রমের জন্য আমরা সেমিফাইনালে উঠতে পেরেছি এবং তার উপরে আমাদের রয়েছে বিশ্বের সেরা গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেজ। চল আর্জেন্টিনা!’ তবে এবারই প্রথমবার আর্জেন্টিনার ত্রাণকর্তা হিসাবে আবির্ভূত হননি এমিলিয়ানো। এর আগে ২০২১ কোপা আমেরিকার সেমি-ফাইনালে কলম্বিয়ার বিপক্ষে টাইব্রেকারে জয় এনে দিয়েছিলেন। আর ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপের ফাইনালে ফ্রান্সকে পেনাল্টি শ্যুটআউটে পরাজিত করে রীতিমতো বিখ্যাত হয়ে যান এই গোলরক্ষক।

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত